বিদ্যুৎ ও ব্যান্ডউইথ বিনিময় : সম্পর্ক উন্নয়নের মাইলফলক


ভারতের ত্রিপুরা থেকে বাংলাদেশের জাতীয় গ্রিডে যোগ হলো ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ। একইসঙ্গে বাংলাদেশ থেকে ভারতে দেওয়া হলো ১০ জিবিপিএস ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ। বিদ্যুৎ আমদানি এবং বাংলাদেশ থেকে ব্যান্ডউইথ রফতানির এই বিনিময় সম্পর্ক উন্নয়নের ক্ষেত্রে আরেকটি মাইলফলক স্থাপন করলো বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি একে ঐতিহাসিক বলে উল্লেখ করেন।

বুধবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যৌথভাবে ত্রিপুরা-কুমিল্লা আন্তঃদেশীয় গ্রিডের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। উদ্বোধনকালে তারা এসব কথা বলেন। 

ঢাকা থেকে ভিডিও কনফারেন্সে শেখ হাসিনা তার বক্তব্যে বলেন, বিদ্যুৎ আমদানি আমাদের জ্বালানির চাহিদা পূরণ হবে। এতে করে আমাদের আরেকটি রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতি পূরণ হলো।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের সহযোগিতার পরবর্তী পদক্ষেপ হবে আন্তঃযোগাযোগের সম্প্রসারণ। শুধু বস্তুগত সংযোগই নয়, আমরা দুই দেশের মধ্যে ভার্চুয়াল সংযোগ, মানুষে মানুষে যোগাযোগ, চিন্তা-চেতনার যোগাযোগসহ সব ধরনের সংযোগ স্থাপন করতে চাই।

বাংলাদেশ থেকে ব্যান্ডউইথ রফতানিতে ত্রিপুরাসহ এ অঞ্চলের বিকাশে ভূমিকা রাখবে। ঢাকায় গণভবন থেকে শেখ হাসিনা ও দিল্লিতে নরেন্দ্র মোদির ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে একযোগে উদ্বোধনের সঙ্গে সঙ্গেই ভারত-বাংলাদেশ ৪০০ কেভি ডাবল সার্কিট লাইনটিতে বাণিজ্যিকভাবে বিদ্যুৎ সঞ্চালন শুরু হয়েছে।

এ লাইন দিয়ে ত্রিপুরার পালাটানা গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আনা হবে। বিদ্যুৎ আনতে বাংলাদেশ অংশে ২৭.৮ কিলোমিটার ও ভারতে অংশে ২৪ কিলোমিটার সঞ্চালন লাইন নির্মাণ করা হয়েছে। লাইনটি বাংলাদেশে কুমিল্লার কসবা দিয়ে প্রবেশ করেছে। সব মিলিয়ে গ্রিড লাইনটির মোট দৈর্ঘ্য প্রায় ৫২ কিলোমিটার। তবে ত্রিপুরা থেকে পরীক্ষামূলকভাবে বিদ্যুৎ আমদানি শুরু হয়েছে গত ১৬ মার্চ থেকে। বুধবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে আমদানি শুরু হলো।

এ সময় দিল্লি থেকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি একে ঐতিহাসিক বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানজির সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক অটুট ছিলো। আজও আমরা আপনার সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একসঙ্গে চলছি। আমরা দুই দেশ মিলে বিশ্বের সামনে একটি উদাহরণ তৈরি করছি। বিদ্যুৎ ও ব্যান্ডউইথ বিনিময়ের এই দিনকে ‘নতুন শক্তির বিকাশের দিন’ অভিহিত করেন তিনি।
সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment