রাডার ফাঁকি দিতে এলো নমনীয় স্কিন


যখন বেশিরভাগ মানুষ অদৃশ্য হওয়ার চিন্তা করে তখন মাথায় আসে হ্যারি পটারের কথা। হ্যারি পটার এক ধরণের কাপড় পরতো যা দিয়ে অদৃশ্য হয়ে স্কুল লাইব্রেরিতে প্রবেশ করা যেতো। 
লোয়া স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক একটি গবেষণা পত্র প্রকাশ করেছে যেখানে ব্যবহার করা হয়েছে নমনীয় উপাদান। এমন একটি উপাদান যা প্রকৃতিতে পাওয়া যায় না এবং এই উপাদান ব্যবহার করে সহজেই রাডারের চোখকে ফাঁকি দেয়া যায়। 

গবেষক দল রাডারকে ফাঁকি দেয়া এই উপাদানের নাম দিয়েছে ‘মেটা স্কিন।’ তরল ধাতু বিভক্ত রিং সিলিকন রাবারের স্তর দিয়ে এই স্কিন তৈরি করা হয়। তরল ধাতব কাঠামোটি গ্যালিয়াম এবং ইন্ডিয়াম ধাতুর মিশ্রণে গ্যালিন্সটান দিয়ে তৈরি। 
এতে তরল কক্ষ তাপমাত্রায় থাকে কিন্তু এতে কোন মার্কারির মতো কোন বিষাক্ত পদার্থ থাকে না। এই স্পিলিট রিং রিজোনেটরস রাডারের চোখকে ফাঁকি দিতে ব্যবহৃত হয়। নির্দিষ্ট তরঙ্গের মধ্যে রাডার মেটা স্কিনকে শনাক্ত করতে পারে না। 

এই রিজোনেটরস তরল এবং নমনীয় উপাদানের সাহায্যে গবেষক দল রাডার বিরোধী শিট তৈরি করেছে। এই শিট ব্যবহার করা যাবে যেকোনো বস্তুর ওপরে। যদিও রাডারের সবটুকু তরঙ্গকে এই শিট শুষে নিতে পারে না তবুও মেটা স্কিন ৭৫ শতাংশ তরঙ্গ শুষে নিতে পারে। 

নমনীয় হওয়ার কারণে রেসোনেটরস বিভিন্ন তরঙ্গ শুষে নেয়ার জন্য আকার পরিবর্তন করতে পারে। গবেষক দল রেসোনেন্সের তরঙ্গ ৯.১৫ থেকে ১২.৩৮ গিগাহার্জের মধ্যেও রাডারকে ফাঁকি দিতে সক্ষম হয়েছে।
তবে এই প্রযুক্তিকে আরও উন্নত করার জন্য গবেষক দল তাদের গবেষণা চলমান রেখেছে। 
সূত্র : বাংলামেইল২৪

Post a Comment