ঘাসের ওপরে খালি পায়ে হাঁটার উপকারিতা


সবুজ ঘাস, সূর্যের আলো ও অসাধারণ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আপনার মনও শরীর মুহূর্তেই ভালো করে দেবে, যখন এমন একটি পরিবেশে আপনি খালি পায়ে ঘাসের বুকে হাঁটবেন। এখন নিশ্চয়ই মনে করবেন দালান-কোঠার এই ব্যস্ত শহরে ঘাসের ওপরে খালি পায়ে হাঁটার কোন জায়গা আছে? হয়তো নেই, কিন্তু খুঁজে দেখতে পারেন।

সকালে যখন ব্যায়াম করতে বের হন, হাঁটতে বা দৌঁড়াতে যান, তখন চেষ্টা করুন ঘাসের ওপর দিয়ে খালি পায়ে কিছুক্ষণ হাঁটতে। কারণ খালি পায়ে ঘাসের ওপর দিয়ে হাঁটলে তা দেহের উপকার করে এবং শরীর ও মন দুটোই ভালো থাকে তাছাড়া ওজন কমাতে ও সুস্থ থাকতে হাঁটা সবচাইতে ভালো শরীরচর্চা।

আসুন জেনেনি ঘাসের ওপরে খালি পায়ে হাঁটার স্বাস্থ্য উপকারিতা...

দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধি পায়

আমাদের পায়ে অনেক রিফ্লেকজোলজি জোন আছে যা দেহের চোখ সহ অনেক অঙ্গের সাথে যুক্ত। যখন আমরা খালি পায়ে হাঁটি তখন দেহের সম্পূর্ণ ভার থাকে পায়ের ওপর।
পায়ের ৎবভষবীড়ষড়মু জোন যেহেতু চোখের সাথেও যুক্ত তাই ঘাসের ওপর দিয়ে খালি পায়ে হাঁটলে চোখের দৃষ্টি শক্তি বৃদ্ধি পায়। তাছাড়া চোখের স্বাস্থ্যের জন্য সবুজ রং খুব উপকারী। তাই চোখের সুস্থতার জন্য প্রতিদিন সকালে ঘাসের ওপর দিয়ে হাঁটুন।

পা সুস্থ রাখে

খালি পায়ে হাঁটা পায়ের জন্য খুব ভালো ব্যায়াম। এইভাবে পায়ে শক্তি বৃদ্ধি পায় পেশী মজবুত হয় পায়ের রগ ও লিগামেন্টস, পায়ের গোড়ালি ও পায়ের পাতা শক্তি বৃদ্ধি পায়। খালি পায়ে গাসে হাঁটলে কোন আঘাত নিরাময় হয়, হাঁটুর সমস্যা ভালো হয়, পিঠের সমস্যাও ভালো হয়ে থাকে।

স্ট্রেস দূর করে

ভোরে খালি পায়ে ঘাসের ওপর দিয়ে হাঁটার ফলে মন খুব শান্ত থাকে ও সকালের পরিষ্কার বাতাস, মৃদু সূর্যের আলো ও সবুজ পরিবেশ সবকিছু মিলিয়েই মনকে খুব ভালো রাখার চেষ্টা করে। সকালে হাঁটার মাধ্যমে ফ্রেশ অক্সিজেন গ্রহণ করি আমরা, সূর্যের আলো দেহে ভিটামিন ডি যোগায় এবং সকালের শান্ত পরিবেশ আমাদের মন ভালো রাখে।

দেহে ভিটামিন ডি পুষ্টি যোগায়

যখন আপনি খালিপায়ে ঘাসের ওপর দিয়ে হাঁটেন তখন সূর্যের রশ্মি আমাদের দেহে ভিটামিন ডি যোগায়, ভিটামিন ডি আমাদের দেহের হাড় মজবুত করে, এবং হাড়ের যেকোন সমস্যা রোধ করতে সাহায্য করে। তাই সুস্থ থাকতে সকালের বা বিকেলের মৃদু রোদে খালি পায়ের ঘাসের ওপর কিছুক্ষণ হাঁটুন।
সূত্র : আমাদের সময়

Post a Comment