রিজার্ভ চুরি : রিজাল ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক বরখাস্ত


বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ফিলিপাইনের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকের (আরসিবিসি)  জুপিটার শাখার ব্যাবস্থাপক মাইয়া স্যান্তোস দেগুইতো ও তার ডেপুটিকে বরখাস্ত করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার দেশটির প্রভাবশালী দৈনিক ইনকোয়ারারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাণিজ্যিক নথি বিকৃত করে ব্যাংকের নীতি ও পদ্ধতি লঙ্ঘনের দায়ে দেগুইতো ও তার ডেপুটিকে বরখাস্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার থেকে ওই বরখাস্ত কার্যকর হবে। 

গত ৫ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংকে রাখা বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার চুরি করে হ্যাকাররা। ম্যানিলার ব্লু রিবন কমিটি জানায়, আরসিবিসি ব্যাংকের জুপিটার স্ট্রিটের শাখা থেকে গত ৫ ফেব্রুয়ারি ওই ৮ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার ব্যাংকটির চারটি অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করা হয়। পরে এই অর্থ ক্যাসিনোতে ব্যবহার করা হয়।

আরসিবিসির এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আগামী কয়েকদিনের মধ্যে ব্যাংকের অন্যান্য শাখা এবং কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধেও বিভিন্ন ধরনের বিধিনিষেধ আরোপ করা হতে পারে। ব্যাংকের অভ্যন্তরীণ তদন্ত শেষ হওয়ার পরপরই অনেককে বরখাস্ত অথবা সাময়িক অব্যাহতিও দেয়া হতে পারে। 

ব্যাংক কর্তৃপক্ষ দাবি করে বলছে, দেগুইতো এবং তোরেস ৮১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার পাচারে ব্যাংকের নীতি ভেঙেছেন। এ ঘটনায় সিনেটের ব্লু রিবন কমিটি ও অ্যান্টি মানি লন্ডারিং কাউন্সিল তদন্ত করছে। আগামী সপ্তাহে দেগুইতো এবং তোরেসের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করা হবে। 
সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment