আবারও নিষিদ্ধ হোভারবোর্ড


হোভারবোর্ড নিয়ে যতো আলোচনা হয়েছে ততই রয়েছে সমালোচনা। বেশিরভাগ হোভারবোর্ড নিষিদ্ধ হয়েছে হঠাৎ করে আগুন লেগে যাওয়ার জন্য। তবে এবার নিষিদ্ধ হওয়ার কারণ ভিন্ন। ইউএস ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড কমিশন কিছু ব্যক্তিগত যানবাহনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। 

বুধবারে ইউএস এজেন্সি জানিয়েছে, সেগাওয়ে প্যাটেন্টে যেসব স্বনিয়ন্ত্রিত যানবাহনের ওপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে তা আর যুক্তরাষ্ট্রে আমদানী করা যাবে না।

এ আইন অনুসারে হোভারবোর্ডসহ স্মার্ট ব্যালেন্সিং ডিভাইসগুলো যুক্তরাষ্ট্রে বিক্রি অবৈধ। 

দু’চাকার যানবাহন চালনা নির্দেশ সম্পর্কে মঙ্গলবারে সেগাওয়ে একটি পরিপূর্ণ প্রতিবেদন টুইট করেছে। তবে এই টুইটে করা কোন কমেন্টের জবাব প্রতিষ্ঠানটি দেয়নি। 
প্রতিবেদনে বলা হয়, সাধারণ অব্যাহতির আদেশ বিশেষভাবে তাৎপর্যপূর্ণ কারণ এতে যেসব পণ্য সেগাওয়ে দ্বারা নিষিদ্ধ ঘোষণা করা  হয়েছে তা আমদানী করার ওপরেও নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে।

হোভারবোর্ড গতবছরের জনপ্রিয় প্রযুক্তিগুলোর মধ্যে অন্যতম ছিল। বেশিরভাগ হোভারবোর্ড নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো চীনের। তবে হঠাৎ আগুন লাগা সমস্যা দেখা দেয়ার পর অনেকগুলো প্রতিষ্ঠানকে সরাসরি নিষিদ্ধ করা হয়েছিল হোভারবোর্ড কেনার ক্ষেত্রে।

পাওয়ার ইউনিয়ন, রোবস্টেপ, ইমোশন, ফ্রি গো চায়না, আপটেক, ইউ.পি. রোবোটিক্স এবং ইউ.পি এই প্রতিষ্ঠানগুলোর হোভারবোর্ড নির্মাণে নিষিদ্ধ হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অন্যতম। 

উল্লেখ্য, ফেব্রুয়ারি ইউএস কনজ্যুমার প্রোডাক্ট সেফটি কমিশন সকল ধরণের হোভারবোর্ডকে অনিরাপদ হিসেবে ঘোষণা করেছিল। 
সূত্র : বাংলামেইল২৪

Post a Comment