মুচকি হাসির উপকারিতা


 হাসি-কান্না, রাগ-অনুরাগ প্রতিটি কাজেই মানুষের শরীরের অঙ্গগুলো প্রভাবিত হয়। চিকিৎসা বিজ্ঞানেও তা প্রমাণিত। মানুষের রাগ ও অট্ট হাসিতে যথাক্রমে শরীরের ছিচল্লিশটি ও চৌদ্দটি অঙ্গ প্রভাবিত হয়। যার ফলে মানুষের মেরুদণ্ডের আঘাতপ্রাপ্ত হয়। তাই অট্ট হাসি এবং রাগ দমনে রয়েছে শারীরিক উপকারিতা আবার হাদিসের উপর আমলে রয়েছে ছাওয়াব।

পক্ষান্তরে যারা মুচকি হাসে। তাদের এ মুচকি হাসির কারণে মেরুদণ্ড সমান্তরাল থাকে। বিশ্বনবীর হাদিসেও মুচকি হাসির নির্দেশনা রয়েছে। যাতে রয়েছে অনেক কল্যাণ। যা এখানে তুলে ধরা হলো-


জরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, সৎ আমলের কোনো কিছুকেই তুচ্ছ মনে করো না, যদি তা (সৎ আমলটি) তোমার নিজের ভাইয়ের সঙ্গে মুচকি হাসি দিয়ে মিলিত হওয়ার দ্বারাও হয়। (মুসলিম) মুসলমানের জন্য এটাও একটা সদকা।

সুতরাং অট্ট হাসি ও রাগান্বিত হয়ে অযথাই শরীরের ক্ষতিকর চাপ প্রয়োগ করা ঠিক নয়। তাই আনন্দ-বিনোদন-উল্লাসে মুচকি হাসির মাধ্যমে উদযাপন এবং সৌজন্যবোধ প্রকাশ করা উত্তম। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের শিক্ষাও তাই।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে হাদিসের বিধান অনুযায়ী হাসির ক্ষেত্রে মুচকি হাসির আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।
Source : jagonews24

Post a Comment