দুবার এগিয়েও শেখ জামালের হার


জয় যেন সোনার হরিণ হয়ে গেছে শেখ জামাল ধানমন্ডির কাছে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নরা আজ মালয়েশিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন সেলাঙ্গর এফএর সঙ্গে দু বার এগিয়ে গিয়েও হেরেছে ৩-৪ গোলে। এএফসি কাপে এটি শেখ জামালের টানা তৃতীয় হার।

দুই ম্যাচে ২ জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে ‘ই’ গ্রুপে সবার ওপরে সিঙ্গাপুরের ক্লাব টেম্পাইন রোভার্স। সমান ম্যাচে ফিলিপাইনের ক্লাব সেরেস লা সাল্লে ১ জয় ও ১ ড্রয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে। তিন ম্যাচে ৪ পয়েন্ট সেলাঙ্গরের।
শেখ জামালের হয়ে দুটি গোল করেছেন ওয়েডসন আনসেলমে, অন্যটি ল্যান্ডিং দারবোয়ের। ল্যান্ডিং, ওয়েডসন, এমেকা—তিন বিদেশিকে বাদ দিলে শেখ জামালের বেশির ভাগ ফুটবলারই জাতীয় দলের। কিন্তু মাঠের খেলায় জাতীয় দলের মতোই এলোমেলো। পরিকল্পিত আক্রমণ খুবই কম, দেশি ফুটবলারদের শরীরী ভাষায় জয়ক্ষুধার বড্ড অভাব। কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক আগের দিন বলেছিলেন, ‘ফুটবলাররা শতভাগ উজাড় করে খেললে, তবেই আমরা জিতব।’ কিন্তু আদৌ কি শতভাগ উজাড় করে খেলছেন দেশি ফুটলবাররা? সেটাই কোটি টাকার প্রশ্ন।
২৮ মিনিটে প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে ল্যান্ডিং দূরপাল্লার শটে প্রথমে শেখ জামালকে এগিয়ে নেন। ৩৮ মিনিটে প্যাট্রিক রোনালদিনহো সমতায় ফেরান। দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে খেলা। ৫৩ মিনিটে স্কোর ২-১ করেন গোপি রামাচন্দ্রন। ৬৫ মিনিটে ল্যান্ডিংয়ের শট মালয়েশিয়ার গোলরক্ষক নরাজলান বিন রাজালি ফিস্ট করে ফেরালে সেই বলেই হেড ল্যান্ডিংয়ের মাথা ছুঁয়ে ২-২। পরের মিনিটেই ৩-২ করেন ওয়েডসন। ৭০ মিনিটে ডিফেন্ডারদের ভুলে ৩-৩। ৮৪ মিনিটে গোলরক্ষক সোহেলের ভুলে আন্দ্রেস অলিভি গোল করে ছিনিয়ে নেন জয়। ১২ এপ্রিল শেখ জামাল ধানমন্ডি চতুর্থ ম্যাচটি খেলবে সেলাঙ্গরের সঙ্গে মালয়েশিয়ায়।

Source : jagonews24

Post a Comment