সেদ্ধ ডিম না ওমলেট? কীসে পুষ্টি বেশি?


কেউ ভালবাসেন সেদ্ধ ডিম, কেউ পোচ, কেউ বা আবার ওমলেট। অতিরিক্ত ডিমপ্রেমীরা আবার অতকিছু ভাবেনই না। যে কোনও প্রকারে ডিম তাদের চাই-ই-চাই। স্বাস্থ্য সচেতনরা আবার ডিম ভাজার বদলে সেদ্ধতেই মন দেন বেশি। তবে জানেন কি পুষ্টিগুণে সেদ্ধ ও ওমলেট টেক্কা দেয় একে অপরকে? যে ভাবেই খান ডিম সব সময়ই দারুণ।
পুষ্টিগুণ
একটা গোটা সেদ্ধ ডিমে রয়েছে ৭৮ ক্যালরি, ৬.৩ গ্রাম প্রোটিন, ০.৬ গ্রাম কার্বহাইড্রেট ও ৫.৩ গ্রাম ফ্যাট। যার মধ্যে ১.৬ গ্রাম স্যাচুরেটেড ফ্যাট।
ওমলেটে রয়েছে ৯০ ক্যালরি, ৬.৮ গ্রাম ফ্যাট। স্যাচুরে়টেড ফ্যাটের পরিমাণ ২ গ্রাম।
ভিটামিন
একটা গোটা সেদ্ধ ডিমের ১৫ শতাংশ রাইবোফ্লোভিন, ১০ শতাংশ ভিটামিন বি১২ ও ১১ শতাংশ ভিটামিন। ভাজ ডিমেও ভিটামিনের পরিমাণ প্রায় একই। রাইবোফ্লোভিন রক্তকণিকা তৈরি করতে সাহায্য করে, বি১২ স্নায়ুতন্ত্র ও মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা নিয়নন্ত্রণ করে, ভিটামিন ডি রোগ সংক্রমণ প্রতিরোধ করে।
খনিজ
এ বার কিন্তু সেদ্ধ ডিমকে টেক্কা দিয়ে দিয়েছে ওমলেট। সেদ্ধ ডিমের থেকে ওমলেটে মিনারেলের পরিমাণ বেশি। সেদ্ধ ডিমে যেখানে ৯ শতাংশ ফসফরাস রয়েছে, ওমলেটে সেখানে ফসফরাসের পরিমাণ ১০ শতাংশ। হাড় শক্ত করতে ফসফরাস অত্যন্ত জরুরি। 
সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

Post a Comment