**TRY FREE HUMAN READABLE ARTICLE SPINNER/ARTICLE REWRITER**

বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচটি ছিল পাতানো!


ব্যাঙ্গালুরুর এম চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-ভারত শ্বাসরূদ্ধকর ম্যাচটি চলাকালেই ভারতের উত্তর প্রদেশে হার্ট অ্যাটাকে মারা গিয়েছিলেণ এক ভক্ত। শেষ ওভারে যে থ্রিলার জন্ম নিয়েছিল ওই ম্যাচে, যা হার্ট দুর্বল মানুষদেরকে বেশ সমস্যাই ফেলে দিয়েছিল। শ্বাসরূদ্ধকর ওই ম্যাচে ভারত জিতবে এটা অতি স্বপ্নাচারি কেউ ভাবতে পারেনি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মহেন্দ্র সিং ধোনিরা ১ রানে জিতে টিকে রইলো টুর্নামেন্টে, শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে।

এমন একটি ম্যাচ, অথচ এটি নিয়ে সন্তুষ্ট হতে পারছে না অনেকেই। যেমন পাকিস্তানের সাবেক স্পিনার তৌসিফ আহমেদ। তার চোখে, যেভাবে ম্যাচটি শেষ হয়েছে তাতেই সন্দেহ তুলে দেয়া যায়। এটা কোনভাবেই মেনে নেওয়ার মত নয়। তিনি আইসিসিকে আহ্বান জানান, আকসুর উচিৎ বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচটি নিয়ে তদন্ত করা। কারণ, এ ধরনের ম্যাচেই ফিক্সিংয়ের সম্ভাবনা থাকে বেশি।

পাকিস্তানের হয়ে ৩৪ টেস্ট আর ৭০টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন তৌসিফ আহমেদ। সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন,‘শেষ ওভারে বাংলাদেশ কিভাবে ভারতকে ম্যাচ উপহার দিলো, তা ক্রিকেটের কোনো ফর্মুলাতেই বুঝতে পারছি না। আমি মনে করি, এ ম্যাচটি তদন্ত হওয়া প্রয়োজন।’

বাংলাদেশ শেষ বলে ম্যাচ হেরেছে। ৪ উইকেট হাতে থাকা বাংলাদেশের শেষ ৩ বলে জয়ের প্রয়োজন ছিল ২ রান। তৌসিফ বলেন, ‘বাংলাদেশ এখন আর অনভিজ্ঞ দল নয়। তখন দলের অভিজ্ঞ দুই ব্যাটসম্যানই ছিলেন ক্রিজে। আমি বুঝতে পারছি না তারা কিভাবে ম্যাচটিকে প্রথমে অন্তত টাই না করে বিগ হিটে গেলেন। আমার অভিজ্ঞতা বলছে, ম্যাচে কিছু জিনিস সঠিক ছিল না।’

পাকিস্তানের সাবেক এ ক্রিকেটার এখন দেশটির ‘এ’ দলের কোচ। আছেন ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের কোচিং স্টাফেও। সম্প্রতি তার কোচিংয়ে পাকিস্তান সুপার লিগ জিতেছে ইসলামাবাদ ইউনাইটেড।

Source : jagonews24

Post a Comment