ডায়াবেটিস থেকে পুরোপুরি মুক্তি লাভের পন্থা আবিস্কার!


ডায়াবেটিক রোগীদের জন্য সুখবর। এটি থেকে পুরোপুরি সেরে ওঠার চিকিৎসা আবিস্কারের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছেছে যুক্তরাষ্ট্রের একদল বিজ্ঞানী। তারা বলছেন, টাইপ-১ ডায়াবেটিসে আক্রান্তদের শরীরে বিশেষ পদ্ধতিতে কোষ প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে এ রোগ পুরোপুরি সারিয়ে তোলা যাবে। এ ক্ষেত্রে বিজ্ঞানীরা অনেক দূর এগিয়েছেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।ডায়াবেটিসকে বাংলায় বলা হয় বহুমূত্র রোগ। শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধ-বৃদ্ধা পর্যন্ত যে কেউ আক্রান্ত হতে পারেন। এই রোগ শরীরে বাসা বাঁধে এবং বাকি জীবন দুর্বিষহ করে তুলে। এটি আসলে সঠিক ভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হয়। অন্যথায় মৃত্যুর অবধারিত।

সাধারণত একজন মানুষের অগ্ন্যাশয় যদি যথেষ্ট ইনসুলিন তৈরি করতে না পারে অথবা শরীর যদি উৎপন্ন ইনসুলিন ব্যবহারে ব্যর্থ হয়, তবে তাঁর ডায়াবেটিস হয়েছে বলে ধরা হয়। ফলে ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীকে নিয়মিত ইনসুলিন নিয়ে শরীরে ইনসুলিনের ভারসাম্য ঠিক রাখতে হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার একদল বিজ্ঞানী গবেষণাগারে ইঁদুরের দেহে স্টেম সেল প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণে সফলতা পেয়েছেন। এ পদ্ধতিতে মানুষের ক্ষেত্রে টাইপ-১ ডায়াবেটিস চিকিৎসায় সফলতা আনা সম্ভব বলে তারা মনে করছেন।

ওই গবেষক দলের সদস্য কে লি বলেন, স্টেম সেল প্রতিস্থাপনের এক সপ্তাহের মধ্যেই ইঁদুরগুলোর সুগার লেভেল কমতে থাকে। ধীরে ধীরে সাধারণ মাত্রায় চলে আসে। তখন আমরা প্রতিস্থাপিত কোষটি বের করে নিয়ে আসি। এরপর আবারো দ্রুত গ্লুকোজ বাড়তে থাকে।

গবেষক দলের দাবি, পিপিএলসি প্রতিস্থাপনের আট সপ্তাহের মাথায় এগুলো পুরোপুরি ইনসুলিন নিঃসরণকারী বিটা সেলের মতো কাজ করতে থাকে। এভাবে মানুষের ক্ষেত্রেও ডায়াবেটিস নিরাময় সম্ভব বলে তারা মনে করছেন।
সূত্র : স্বদেশডটকম

Post a Comment