উৎসব মুখর পরিবেশে চলছে ডিএসইর নির্বাচন


উৎসব মুখর পরিবেশে চলছে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পরিচালক পদে নির্বাচন। মঙ্গলবার রাজধানীর মতিঝিলে ডিএসইর প্রধান কার্যালয়ে সকাল সাড়ে ১০টা থেকে এই ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। যা বিরতিহীনভাবে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। 

নির্বাচনে একটি পদের বিপরীতে দুইজন পরিচালক প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন- সাবেক তিন বারের সভাপতি ও মিডওয়ে সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. রকিবুর রহমান এবং বিএলআই সিকিউরিটিজের এমডি মিনহাজ মান্নান ইমন। 

পরিচালক পদ প্রার্থী রকিবুর রহমানের নাম প্রস্তাব করেছেন ধানমন্ডি সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজানুর রহমান খান ও সমর্থন জানিয়েছেন মডার্ন সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খুজিস্তা নূর-ই নাহরীন। অপরদিকে মিনহাজ মান্নান ইমনের নাম প্রস্তাব করেছেন এডি হোল্ডিংস-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফারজানা আজিম ও সমর্থন জানিয়েছেন মার্কেন্টাইল ব্যাংক সিকিউরিটিজের সিইও মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক। 

পরিচালক প্রার্থী মো. রকিবুর রহমান বলেন, আমি নির্বাচনে দাঁড়িয়েছি। আমি এর আগে একাধিকবার ডিএসইর নেতৃত্ব দিয়েছি। পরিচালক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি, আশা করছি এবারও আমি ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হব। তিনি আরো বলেন, নির্বাচিত হলে স্টেক হোল্ডার ও বিনিয়োগকারীদের স্বার্থে কাজ করবো। 

অপর পরিচালক প্রার্থী মিনহাজ মান্নান ইমন জাগো নিউজকে বলেন, বর্তমান প্রজন্ম নতুন নেতৃত্ব চায়। তারা চায় নতুন মুখ পরিচালক পদে আসুক। পরিবর্তনশীল বিশ্বে তাল মিলিয়ে নতুন নেতৃত্ব আসবে এটাই সবার প্রত্যাশা। গতিশীল বাজারের স্বার্থে নতুন নেতৃত্ব প্রয়োজন বলে মনে করছেন তিনি। 

তিনি বলেন, ভোটারদের সঙ্গে আলাপকালে জানতে পেরেছি তারাও পরিবর্তন চায়। নেতৃত্বে নতুন মুখ চায়। আশা করছি আমি ভোটের মাধ্যমে পরিচালক নির্বাচিত হতে পারবে। নির্বাচিত হলে বাজার গতিশীলতায় কাজ করা হবে আমার লক্ষ্য।  

এর আগে গত ১ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনে তফসিল ঘোষণা করা হয়। সে অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় ছিল ১৬ থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি এবং ৭ মার্চ ছিল প্রার্থিতা বাতিল বা প্রত্যাহারের শেষ দিন। 

উল্লেখ্য, ডিএসই শেয়ারহোল্ডার ডাইরেক্টরস ইলেক্টশন রেগুলেশনস- ২০১৪ অনুযায়ী এই নির্বাচন পরিচালিত হবে। ডিএসইর নির্বাচন বিষয়ে তিন সদস্যের কমিশন গঠন করা হয়েছে। কমিটি প্রধান সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি মো. আবদুস সামাদ । এছাড়া অপর দুই সদস্য হলেন- হারুন সিকিউরিটিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. হারুন-উর-রশিদ এবং এম অ্যান্ড জেড সিকিউরিটিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম মনজুর উদ্দিন আহমেদ। 

স্টক এক্সচেঞ্জের মালিকানা থেকে ব্যবস্থাপনাকে আলাদা করার অর্থাৎ ডিমিউচুয়ালাইজেশনের শর্ত অনুসারে প্রথম বছর চারজন শেয়ারহোল্ডার পরিচালক নির্বাচিত হন। এরপর থেকে প্রতিবছর একজন পরিচালক অবসরে যাবেন এবং তার বিপরীতে নতুন একজনকে যুক্ত করা হবে। আগের বছর শাকিল রিজভী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পরিচালক নির্বাচিত হয়েছিল। 
সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment