৬ কারণে ধূমপান করা উচিত না


যদি আত্মহননের পথে চলতে চান তবে ধূমপান করুন। আর সুন্দর পৃথিবীতে বাঁচতে চাইলে ধূমপান অবশ্যই ছেড়ে দিন। আজকাল বিদেশে অনেক সিগারেটের প্যাকেটে এধরনের সতর্ক সংকেত লেখা হয়। ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। ক্ষতিকর জানা সত্ত্বেও অনেকেই ধূমপান করেন। এটি আপনাকে নীরবে হত্যা করবে। তাই যে ছয় কারণে আপনার ধূমপান করা উচিত না।

১. পুরুষত্বহীনতা ঘটায় ধূমপান
হ্যাঁ, আপনি যা শুনছেন তাই সত্যি। এটা শরীরের ওপর খুবই খারাপ প্রভাব ফেলে। পুরুষত্বহীনতার কারণ হতে পারে ধূমপান।

২. শ্বাসযন্ত্রের রোগ
এক গবেষণায় দেখা গেছে, ধূমপায়ীদের শ্বাসযন্ত্রের রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়। যাদের হাঁপানি আছে তাদের জন্য খুবই ক্ষতিকর। এ কারণে ছোট-বড় সবাইকেই এর খারাপ দিক সম্পর্কে জানতে হবে।

৩. টাকার অপচয়
আপনি কি কখনো ভেবে দেখেছেন এক প্যাকেট সিগারেটের জন্য আপনাকে প্রতিদিন কত টাকা খরচ করতে হচ্ছে? যদি আপনার অনেক টাকা থাকে

৪. খাবার স্বাদ ও ঘ্রাণ হারিয়ে যায়

ধূমপায়ীরা সহজেই খাওয়ার স্বাদ ও ঘ্রাণ হারিয়ে ফেলেন। সবচেয়ে দুঃখজনক হচ্ছে ধূমপায়ীরা বুঝতে পারছেন না কেন তাদের এ অবস্থা হচ্ছে। তাই ঝোঁকের বশেও ধূমপান করবেন না।

৫. হার্টের সমস্যা
সিগারেটের নিকোটিন, কার্বন ও মনোক্সাইড নীরবে আপনাকে মৃত্যুর দিকে ঢেলে নিয়ে যায়। যারা প্রতিদিন ধূমপান করেন তাদের অবশ্যই বিষয়টি জানা প্রয়োজন।

৬. ধূমপান ক্যান্সার ঘটায়
ধূমপানের সবচেয়ে খারাপ দিক হচ্ছে এটি ক্যান্সারের মতো মরণঘাতী রোগের সৃষ্টি করে। ফুসফুস, অন্ত্র, ওভারিন ও মুখের ক্যান্সারের জন্য দায়ী ধূমপান। এর খারাপ দিক থেকে বাঁচার কোনো উপায় নেই। একটাই পথ হতে পারে দ্রুত ধূমপান ছেড়ে দিন।
সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন

Post a Comment