নিদ্রাজনিত সমস্যা দূরীকরণে কাজ করছে ফিলিপস


থেরাপি, পরামর্শ ও গবেষণার মাধ্যমে নিদ্রাজনিত সমস্যা দূরীকরণে সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করছে শীর্ষস্থানীয় উদ্ভাবনী স্বাস্থ্যসেবা পণ্য সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ফিলিপস। 

ফিলিপস জানায়, বিশ্বের ১০০ মিলিয়নের বেশি মানুষ অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়া (ওএসএ) বা ঘুমন্ত অবস্থায় শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত সমস্যায় আক্রান্ত যাদের ৮০ শতাংশই এখনও চিকিৎসার বাইরে রয়েছেন যা দীর্ঘমেয়াদে ঘুম বা শ্বাসক্রিয়ায় মারাত্মক প্রভাব ফেলতে পারে।

ফিলিপস আরো জানায়, শ্বাসনালীতে সফ্ট টিস্যু নষ্ট হওয়ার ফলে ফুসফুসে অক্সিজেনের প্রবাহ বাধাগ্রস্ত হয়ে ঘুমের সময় শ্বাস-প্রশ্বাসে যে বাধা সৃষ্টি হয় তাকেই বলা হয় স্লিপ অ্যাপনিয়া। শ্বাসনালীতে দুর্বল পেশি, বড় জিহ্বা, মোটা স্বাস্থ্যসহ বেশ কিছু কারণে সফ্ট টিস্যু নষ্ট হয়ে থাকে। 

স্লিপ অ্যাপনিয়া ঘুমে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে এবং দীর্ঘমেয়াদে মানুষের স্বাস্থ্য, শক্তি, মানসিক কর্মদক্ষতায় নাটকীয় প্রভাব ফেলে। এ সমস্যার যথাযথ চিকিৎসা না হলে কিছু কিছু ক্ষেত্রে তা প্রাণঘাতি হয়ে উঠতে পারে বলেও জানায় ফিলিপস।

সম্প্রতি বিশ্বের ১০টি দেশে পরিচালিত ফিলিপস রেসপাইরনিকসের এক গবেষণায় দেখা যায়, ৯৬ শতাংশ মানুষ ঘুমকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন, ৮৭ শতাংশের কাছে ঘুম তাদের সামগ্রিক স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও সুস্থতায় প্রভাব ফেলে। যদিও মাত্র ১৭ শতাংশ অংশগ্রহণকারীর ঘুমে কোন সমস্যা হয় না।

গবেষণায় আরও দেখা যায়, ভারতে ৯০ শতাংশের বেশি মানুষ ঘুম বঞ্চিত যারা প্রতি রাতে আট ঘণ্টার কম ঘুমায়। অন্যদিকে ৫৪ শতাংশের বেশি ভারতীয় স্লিপ অ্যাপনিয়া বা ঘুমে শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত সমস্যায় ভুগছে যারা ইতোমধ্যে ডায়বেটিকস এবং উচ্চ রক্ত চাপ রোগেও আক্রান্ত হয়েছেন।

ঘুমের সমস্যা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে অনেকে সরাসরি বুঝতে পারে না । অনেকে নাক ডাকেন বা হা করে ঘুমান যা ঘুমের মধ্যে শ্বাসবন্ধ হয়ে যাওয়ার ঝুঁকিকে বাড়িয়ে দেয়। স্লিপ অ্যাপনিয়া ও ঘুমজনিত সমস্যা বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি এবং আক্রান্ত রোগীদের ভোগান্তি প্রশমনের লক্ষ্যে ফিলিপস কাজ করছে। 
সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment