ভক্তদের অশ্রুতে মার্টিন ক্রোর শেষকৃত্য সম্পন্ন


ক্যান্সারের বিরুদ্ধে চার বছরের লড়াইয়ের পর গত ৩ মার্চ (বৃহস্পতিবার) ৫৩ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন নিউজিল্যান্ডের কিংবদন্তি ক্রিকেটার মার্টিন ক্রো। ১১ মার্চ শুক্রবার  তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় অকল্যান্ডে। এ সময় সেখানে তার স্ত্রী সাবেক মিস ইউনিভার্স লরেইন ডাউনস, কন্যা এমা ও দুই ছেলে  হিল্টন ও জ্যাসমিন, তার ভাই জেফ ক্রো, জাতীয় দলের সাবেক সতীর্থ ইয়ান স্মিথ এবং স্কুলবন্ধু ডেভিড লাইলি মোরিস ছাড়াও সহ হাজির হন প্রায় হাজার খানেক ভক্ত-শুভাকাঙ্খি।

পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, অকল্যান্ডের বাড়িতেই মারা যান ক্রো। পরিবারের সদস্যরা এ সময় তার পাশে ছিলেন। দুরারোগ্য রক্তের ক্যান্সার লিম্ফোমায় আক্রান্ত হলেও ২০১২ সালে এটি থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার খবর দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু ২০১৪ সালে ক্রো’র শরীরে আবারও ফিরে আসে এ রোগটি। সাম্প্রতিক সময়ে তিনি অবশ্য কেমোথেরাপি নেয়া বন্ধ করে দেন। এর পরিবর্তে বাড়িতে থেকে প্রাকৃতিক চিকিত্সা পদ্ধতির মধ্যে ছিলেন তিনি। তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করে বেশ কয়েকটি চ্যানেল। এছাড়াও অনলাইনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

উল্লেখ্য নিউজিল্যান্ডের হয়ে ৭৭টি টেস্ট খেলে ১৭টি সেঞ্চুরিসহ ৪৫.৩৬ গড়ে ৫৪৪৪ রান করেছেন তিনি। ১৬ টেস্টে নিউজিল্যান্ডের নেতৃত্ব দেন ক্রো। ১৯৯১ সালে ওয়েলিংটনে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২৯৯ রানের ইনিংসটি হলো তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ।

এছাড়াও ১৪৩টি ওয়ানডে খেলেছেন মার্টিন ক্রো। ওয়ানডেতে ১৪৩ ম্যাচে ৩৮.৫৫ গড়ে ৪৭০৪ রান করেন ক্রো। এর মধ্যে সেঞ্চুরি চারটি। বিশ্বকাপ খেলেছেন তিনটি। এর মধ্যে ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডকে সেমিফাইনালে তোলায় তার ছিল বড় অবদান। 
 Source : jagonews24

Post a Comment