নিজেদের ফেবারিট মানছেন না মাশরাফি


সংবাদ সম্মেলনে কয়েকবারই এল প্রসঙ্গটা। মাশরাফি বিন মুর্তজা প্রতিবারই তা সবিনয়ে এড়িয়ে গেলেন। তার মুখ দিয়ে বেরই করা গেল না, ‘ইডেন গার্ডেনে কাল বাংলাদেশ ফেবারিট’। সুপার টেনের প্রথম ম্যাচটা নাকি প্রতিপক্ষ পাকিস্তানকে এগিয়ে রেখেই খেলতে নামবে তাঁর দল।


বাংলাদেশ-পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি ম্যাচ এখন পর্যন্ত হয়েছে ৯টি। সাতটিতেই জয়ী পাকিস্তান। এটুকু শুনলে মনে হতেই পারে যে, এই দুই দলের ম্যাচে পাকিস্তান ফেবারিট। কিন্তু বাংলাদেশের দুটি জয়ই যে এসেছে পর পর, দুই দলের সর্বশেষ দুই সাক্ষাতে! গত বছরের এপ্রিলের হোম সিরিজে একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি জেতার পর বাংলাদেশ দল পাকিস্তানকে হারিয়েছে এ মাসের ২ তারিখে এশিয়া কাপের ম্যাচেও। তাছাড়া টি-টোয়েন্টি আর ওয়ানডে মিলিয়ে দুই দলের সর্বশেষ পাঁচ ম্যাচের পাঁচটিতেই জয়ী বাংলাদেশ। ইডেন গার্ডেনে কাল তাহলে কেন মাশরাফির দলই ফেবারিট হবে না?

কারণ, মাশরাফির প্রথম কথা, ‘টি-টোয়েন্টিতে ফেবারিট বলে কিছু নেই।’ তাছাড়া সাম্প্রতিক সাফল্যের আলোচনা ছাপিয়ে তাঁর চোখ চলে যাচ্ছে আরও পেছনে, ‘ইতিহাসই বলছে পাকিস্তান অনেক ভালো দল। টি-টোয়েন্টি সংস্করনটাও তারা খুব ভালো বোঝে।’ ২০০৯-এর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নদেরই তাই কালকের ম্যাচে ফেবারিট মনে করছেন মাশরাফি।

মাশরাফির কয়েক ঘন্টা আগে সংবাদ সম্মেলন করে গেছেন পাকিস্তানের কোচ ওয়াকার ইউনুস। জ্বরে ভুগছেন বলে অনুশীলনেই আসেননি অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি। ওয়াকারের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল এই ম্যাচে দুই দলেরই সমান সম্ভাবনা কি না। উত্তরটা তিনি দিলেন কূটনৈতিক চালে, ‘সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশ দল অনেক উন্নতি করেছে। দল হিসেবে তাদের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা আছে। সব ম্যাচেই ভালো করছে তারা। তবে বিশ্বকাপ হবে ভিন্ন কন্ডিশনে। এখানে আমরাও চেষ্টা করব ভালো খেলতে।’

বাংলাদেশ দলের জন্য সুখবর হলো, পরশু ধর্মশালায় অল্প রান আপে বল করার পর আজ ইডেনের নেটে পুরো রান আপে বল করেছেন পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। ভারতে আসার পর এটাই তাঁর প্রথম পুরো রান আপে বল করা। তবে এতেই নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না মুস্তাফিজ কাল খেলছেন। এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটা হবে ম্যাচের আগে।

Source : jagonews24

Post a Comment