মেয়ের প্রেমিকের হাতে মা-মেয়ে ধর্ষিত


মেয়েকে ধর্ষণের তিনদিন পর তার ৬০ বছর বয়সী মাকেও ধর্ষণ করেছে ওই মেয়ের পাষণ্ড প্রেমিক! আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডুবলিনে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষিতাদের পরিচয় গোপন রাখার জন্য ৪৭ বছর বয়সী ওই ধর্ষকেরও নাম প্রকাশ করেনি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম।

ডুবলিনের কেন্দ্রীয় অপরাধ আদালত ইতোমধ্যে ওই অপরাধীকে চার বছরের সাজা দিয়েছেন। সাম্প্রতিক ওই রায়ে আদালত বলেন, অভিযুক্ত তার প্রেমিকার বাড়ি ভাঙচুর করেন। সেই সঙ্গে তার মায়ের গলায় ছুরি ধরে তাকে ‘পতিতা’ বলে গালি দেন এবং ধর্ষণ করেন।

গোয়েন্দা কর্মকর্তা পাওল ক্লেরি আদালতকে জানান, মেয়েকে ধর্ষণের সময় ধর্ষিতার বাবাকে বেঁধে রেখে তিন ঘণ্টা ধরে তার উপর পাশবিক নির্যাতন চালানো হয়। যতক্ষণ পর্যন্ত সে বমি না করেছে ততক্ষণ পর্যন্ত পাশবিক নির্যাতন বন্ধ করেনি ওই পাষণ্ড।

আইরিশ পুলিশ ধর্ষককে ধাওয়া করে তার উপর পিপার স্প্রে নিক্ষেপ করে তাকে ধরাশায়ী করে আইনের আওতায় নিয়ে আসে।

২০১৫ সালের ২ এবং ৫ জুলাই এ ঘটনাগুলো ঘটে। এর আগে প্রেমিকাকে হয়রানির কারণে ওই ব্যক্তি ২০১৪ সালে জেলে যায় এবং পরে তার জামিন হয়।

আদালত জানান, অহেতুক জেল খাটানোর অভিযোগে ক্ষুব্ধ হয়ে দুই নারীকে বিভিন্ন উপায়ে ধর্ষণ, চুরি, হত্যাচেষ্টা এবং নির্মম যৌন নির্যাতনের অভিযোগে তাকে সাজা দেয়া হয়েছে।

যদিও আসামির আইনজীবী ডোমিনিক ম্যাকগিন জানান, তার মক্কেল মানসিকভাবে রোগাক্রান্ত।

Source : jagonews24

Post a Comment