গেইলের এক ইনিংসেই অনেক রেকর্ড


ক্রিস গেইলের ব্যাটিং তাণ্ডবে সুপারে টেনে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এদিন ৪৭ বলে সেঞ্চুরি করেন এই ক্যারিবীয় দানব। গেইলের তাণ্ডব দেখে তো হতবাক পুরো ক্রিকেট বিশ্ব। এই ম্যাচে জয় ছাড়াও বেশ কিছু রেকর্ড গড়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দেখে নেয়া যাক সেসব রেকর্ড:

৯: টি-টোয়েন্টিতে এটি ছিল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৯ম জয়। টি-টোয়েন্টিতে এটা একটা রেকর্ড। নির্দিষ্ট কোন এক দলের বিপক্ষে কোন দলের সর্বোচ্চ জয়ের রেকর্ড এটি। গেইলের ওয়েস্ট ইন্ডিজই গড়লো এই রেকর্ড। আবার লজ্জার রেকর্ড হলো ইংল্যান্ডেরও। নির্দিষ্ট কোন এক দলের কাছে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ পরাজয়ের লজ্জায় ডুবতে হলো ইংল্যান্ডকে।

২: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো সেঞ্চুরি করলেন ক্রিস গেইল। তিনিই একমাত্র ব্যাটসম্যান, যিনি বিশ্বকাপে দুদবার সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। তার প্রথম সেঞ্চুরিটি এসেছিল ২০০৭ বিশ্বকাপে, জোহার্নসবার্গে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে।

৪৭: এই ম্যাচে ক্রিস গেইল ৪৭ বলে সেঞ্চুরি করেন। দ্রুততম সেঞ্চুরিতে তিনি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে যুগ্নভাবে তৃতীয় অবস্থানে উঠে এসেছেন। আবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এটাই সবচেয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড।

৮৬: ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪৭ বলে গেইলের বিধ্বংসী সেঞ্চুরির মধ্যে ৮৬ রানই এসেছে চার আর ছক্কা দিয়ে। এই ইনিংস খেলতে তিনি ১১টি ছক্কার মার মারেন। সঙ্গে ছিল ৫টি বাউন্ডারি। ফলে ৮৬ রানই এলো বলকে বাউন্ডারির বাইরে পাঠিয়ে। বাকি ১৪ রান এসেছে সিঙ্গেল থেকে।

৯৮: এই একটি ইনিংস খেলে বিরল একটি রেকর্ডও গড়ে ফেললেন গেইল। নিউজিল্যান্ডের সদ্য অবসর নেয়া ব্রেন্ডন ম্যাককালামের রেকর্ড ভেঙে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বাধিক ছক্কা মারার রেকর্ডটি নিজের করে নিলেন গেইল। এরআগে ৯১টি ছক্কা মেরে সবার শীর্ষে ছিলেন ম্যাককালাম। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১১ ছক্কা মেরে গেইলের নামের পাশে শোভা পাচ্ছে ৯৮টি ছক্কা। আর ২টি ছক্কা হলে টি-টোয়েন্টিতে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১০০ ছক্কার মালিক হয়ে যাবেন তিনি।

২০৮.৩৩ : ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪৭ বলে খেলা এই ইনিংসে গেইলের স্ট্রাইক রেট দাঁড়াল ২০৮.৩৩-এ। যা তার টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ১৫টি ৫০ কিংবা তার বেশি ইনিংসের মধ্যে তৃতীয় সর্ব্বোচ্চ। তার সবচেয়ে বেশি স্ট্রাইক রেট ৩১ বলে খেলা ৭৭ রানের ইনিংসটিতে। যেখানে স্ট্রাইক রেট ছিল ২৪৮.৩৮। আর ৫০ প্লাস ইনিংসগুলোতে সবচেয়ে কম স্ট্রাইক রেট হলো ১২৬ (৫০ বলে অপরাজিত ৬৩)।

১০৬: ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে গেইলছাড়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের বাকি ব্যাটম্যানদের স্ট্রাইক রেট ছিল ১০৬। অথ্যাৎ, ইনিংসে গেইলছাড়া অন্য ব্যাটসম্যানদের ব্যাট থেকে এসেছে ৬৩ বলে ৬৭ রান। অথচ গেইল একাই করেছেন ৪৮ বলে ১০০ রান।

৫৭২: ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের দিনে আরেকটি বড় প্রাপ্তি হলো ওয়েস্ট ইন্ডিজের। এই ম্যাচের মধ্য দিয়ে টি-টোয়েন্টিতে ৫৭২ রানের জুটির রেকর্ড গড়েছেন ক্রিস গেইল ও মার্লন স্যামুয়েলস। যা ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে সর্বোচ্চ।

Source : jagonews24

Post a Comment