রিজার্ভ লুটের ঘটনায় ২০ বিদেশি শনাক্ত


বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের টাকা লুটের ঘটনায় ২০ বিদেশি ও বাংলাদেশি কয়েকটি এজেন্সিকে শনাক্ত করেছে পুলিশের অপরাধ ও তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। 

সোমবার দুপুর ১২টায় রাজধানীর মালিবাগস্থ সিআইডির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান এডিশনাল ডিআইজি শাহ আলম।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে একটি প্রতিনিধি দল গত ৬ এপ্রিল ফিলিপাইনে গিয়ে ১৪ তারিখে ফিরে আসে। অন্যদিকে শ্রীলঙ্কায় আরেকটি প্রতিনিধি দল একই দিনে গিয়ে ১৫ এপ্রিল ফিরে আসে। দুই প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আমাদের আজ বিকেলে বৈঠক রয়েছে। বৈঠকে তদন্তের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে।

সিঅাইডির এই কর্মকর্তা বলেন, হ্যাকারদের কাছ থেকে তথ্য নেয়া ও টাকা উত্তোলন যে কঠিন তা ইতোমধ্যে বুঝে গেছে ফিলিপাইন। ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিকভাবে ফিলিপাইনের উপর চাপ অব্যাহত রয়েছে। মানি লন্ডারিং আইনের আওতায় টাকা ফেরতের চেষ্টা চলছে।

তিনি আরো বলেন, সিআইডি প্রতিনিধি দল এফবিআই, মানি লন্ডারিং আইনের এক্সপার্ট, ও ফিলিপাইন গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গে কাজ করেছে। তদন্তে ইতোমধ্যে ২০ বিদেশি নাগরিককে শনাক্ত করা হয়েছে। তাদের গ্রেফতারের জন্য আন্তর্জাতিকভাবে ফিলিপাইনের উপর চাপ রয়েছে।

দেশীয় কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের টাকা লুটের সঙ্গে জড়িত কি না জানতে চাইলে সিআইডির এ অতিরিক্ত ডিআইজি বলেন, বাংলাদেশের কয়েকটি এজেন্সিকে শনাক্ত করা হয়েছে। রিজার্ভের টাকা লুটের ঘটনায় এজেন্সিগুলোর কোনো খামখেয়ালিপনা কিংবা যোগসাজশ রয়েছে কি না তাই এখন খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এসময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সিআইডি’র বিশেষ পুলিশ সুপার(অর্গানাইজড ক্রাইম) মীর্জা আব্দুল্লাহেল বাকী, বিশেষ পুলিশ সুপার(এফটিআই) জান্নাত আরা, অতিরিক্ত এসপি রায়হান উদ্দিন খান।
সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment