শাস্তি পাচ্ছেন ধোনি-স্যামুয়েলস!


মারলন স্যামুয়েলসের অতিমানবীয় ইনিংসে দ্বিতীয় বারের মত বিশ্বকাপ জিতে নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শুধু তাই নয় ২০১২ সালের বিশ্বকাপ জয়ের নায়কও ছিলেন তিনি। তবে এ সবকিছুর চেয়ে সংবাদ সম্মেলোনে স্যামুয়েলসের টেবিলে পা তুলে বসা বেশি সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। আর এটা নিয়ে যথেষ্ট ক্ষুব্ধ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা। 

আইসিসি-র চিফ এগজিকিউটিভ ডেভ রিচার্ডসন এখন স্যামুলেয়সের ব্যাপারটা খতিয়ে দেখছেন। আগামী তিন দিনের মধ্যে জানা যাবে স্যামুয়েলসের ভাগ্যে কী আছে। তার শাস্তি হবে, নাকি সতর্ক করে ছেড়ে দেওয়া হবে।

ঠিক একই ভাবে সেমিফাইনালে হারের পর সাংবাদিক সম্মেলনে মহেন্দ্র সিংহ ধোনি যে ভাবে এক সাংবাদিককে ডেকে এনে তাকে পাশে বসিয়ে কথাবার্তা বলেছেন, সেটাও মেনে নিতে পারছে না আইসিসি। ফলে স্যামুয়েলসের মত শাস্তির মুখোমুখি হতে পারে ভারতীয় অধিনায়কও।

উল্লেখ্য, ক্রিকেটাররা মাঠের মধ্যে উল্টোপাল্টা আচরণ করলে, তাঁকে শাস্তি দিতে পারেন ম্যাচ রেফারি। ‘ব্রিংগিং দ্য গেম টু ডিসরেপিউট’ ধারায়, অর্থাৎ খেলাটাকে অসম্মান করার জন্য। কিন্তু ম্যাচ শেষ হয়ে যাওয়ার পর ক্রিকেটাররা আর ম্যাচ রেফারির ক্ষমতার আওতায় পড়েন না। তবে সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যে সব ঘটনা ঘটেছে, তা দেখার পর আইসিসি এখন চিন্তা ভাবনা করছে ২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগে নতুন আচরণবিধি আইন আনার।

Source : jagonews24

Post a Comment