মুরগি ও সবজির দাম কমলেও বেড়েছে মাছের


মুরগি ও সবজির দাম কমলেও বেড়েছে মাছের দাম। বিশেষ করে পহেলা বৈশাখকে সামনে রেখে গত এক সপ্তাহজুড়ে ইলিশের বাজার অস্থির। এখনো ছোট আকৃতির ইলিশের জোড়া বিক্রি হচ্ছে ১৮শ` থেকে দুই হাজার টাকায়। তবে আলু, বেগুন, টমেটো, ফুলকপি, বাঁধাকপি, ঢেড়শ, করলা, বরবটি, কুমড়া, চিচিঙ্গাসহ অন্যান্য সবজির দাম বাড়েনি। শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুড়ে এমন চিত্র দেখা গেছে।

রাজধানীর কাজিপাড়া, শেওড়াপাড়া, কঁচুখেত, মহাখালী, গুলশান, বাড্ডাসহ বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা যায়, কাঁচাবাজারে পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকায় দাম বাড়েনি বেশিরভাগ সবজির। খুচরা বাজারে এখনো ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১শ` ত্রিশ থেকে ১শ` পয়ত্রিশ টাকায়। আর কাঁচা মরিচের কেজি ৩০ থেকে ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, প্রতি কেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকায়, পেঁপে ৩০ টাকায়, শিমের কেজি ৩০ টাকা, বেগুন ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, করলা ৪০ টাকা, টমেটো ৩০ টাকা, গাজর ৪০ টাকা, শসা ৫০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৩০ টাকা, বরবটি ৩০ টাকা এবং ঢেঁড়শ ৪০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া, কঁচুর লতি ৪০ থেকে ৪৫ টাকা, প্রতি আঁটি লাউ শাক ৩০ টাকা, লাল শাক ও সবুজ শাক ২০ টাকা, পালং শাক ২৫ টাকা, পুঁই শাক ২০ টাকা ও ডাটা শাক ১০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

গরুর মাংস প্রতি কেজি ৪শ` থেকে ৪শ` ২০ টাকা, খাসি ৫৫০ থেকে ৬০০ টাকা এবং কেজি প্রতি ব্রয়লার মুরগি ১৩০-১৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

প্রতি কেজি রুই মাছ ৩৩০-৩৫০ টাকা, তেলাপিয়া ২০০-২৫০ টাকা, সিলভার কার্প ১৫০-২০০ টাকা, আইর মাছ ৪০০-৫০০ টাকা, গলদা চিংড়ি ৫০০-১১০০ টাকা, পুঁটি ১৮০-২০০ টাকা, পোয়া ৪০০-৪৫০ টাকা, মলা ২৫০-৩০০ টাকা, পাবদা ৫০০-৭০০ টাকা, বোয়াল ৪০০-৫০০ টাকা, শিং ৫০০-৭০০, দেশি মাগুর ৬০০-৭৫০ টাকা এবং শোল মাছ ৪০০-৬০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

সুগন্ধি চালের মধ্যে কাটারি ভোগ ৮৫ টাকা কেজি, কাল জিরা প্যাকেট পাওয়া যাচ্ছে প্রতি কেজি ১০০-১২০ টাকায়। বিক্রেতারা প্রতি কেজি মোটা চাল বিক্রি করছে ৪০-৪৫ টাকা দরে। এছাড়া মিনিকেট ৪৮-৫৬ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

মহাখালী আমতলী এলাকার বাসিন্দা আামিরুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, শুক্রবার সকাল ১০টায় এসেছেন মহাখালী কাচা বাজারে। বাজার এখন সহনীয় পর্যায়ে রয়েছে।
সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment