মসজিদের টাকার নিয়ন্ত্রণ পেতে মুয়াজ্জিনকে হত্যা


পুলিশের লালবাগ বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) মফিজউদ্দীন বলেছেন, পুরান ঢাকার ইসলামপুরে ঝব্বু খানম মসজিদের টাকার নিয়ন্ত্রণ পেতেই মুয়াজ্জিন বিল্লাল হোসেনকে হত্যা করা হয়েছে। 

বুধবার বেলা সাড়ে ১২টায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তিনি। 

ডিসি মফিজউদ্দীন বলেন, ওই মসজিদের নিচতলা ও দোতলায় ৩৩টি দোকান আছে। ওই দোকানগুলো থেকে মাসে ৪০/৪৫ হাজার এবং দানবক্স থেকে ১০/১২ হাজার টাকা মসজিদের ফান্ডের নামে উঠতো। ওই টাকার নিয়ন্ত্রণ করতেন মুয়াজ্জিন বিল্লাল হোসেন। কিন্তু ওই টাকার নিয়ন্ত্রণ নিজেদের হাতে নিতে মুয়াজ্জিনকে হত্যা করেন একই মসজিদের খাদেম হাবিবুর রহমান হাবিব, তার সহযোগী মোশাররফ হোসেন ও তোফাজ্জল হোসেন। 

এছাড়া মুয়াজ্জিনের বন্ধু সারোয়ার হালিমও ওই হত্যাকাণ্ডে অংশ নেন। পাওনা টাকা চাওয়ায় মুয়াজ্জিন বিল্লাল হোসেন হত্যাকাণ্ডে অংশ নেন তিনি। 

এর আগে ৪ এপ্রিল রাতে মসজিদের সিড়ি থেকে মুয়াজ্জিনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment