ধোনি-রায়নার ক্ষোভের বলি হার্শা ভোগলে!


বিশ্বকাপেও সব ঠিক ছিল। শুধু বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচটাই সব গণ্ডগোল বাঁধিয়ে দিল। ওই ম্যাচে বাংলাদেশের প্রসংশার পাশাপাশি ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের ভুল ত্রুটি নিয়ে ধারাভাষ্য কক্ষে কথা বলেছিলেন জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে। অনেকটা সে কারণেই এবার আইপিএলের ধারাভাষ্যে রাখা হয়নি ভারতের অভিজ্ঞ এই ধারাভাষ্যকারকে।

বিশ্বকাপের সময় বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন টুইট করে বলেছিলেন, ‘একজন ভারতীয় ধারাভাষ্যকার ভারতীয় ক্রিকেটারদের চেয়ে বিদেশি ক্রিকেটারদের নিয়ে বড্ড বেশি কথা বলেন।’ সেই টুইটকে সায় দিয়ে ভারতের বর্তমান ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক ধোনি টুইট করেন, ‘এরপর আর কিছু বলার নেই।’ বিষয়টি নিয়ে নানা প্রতিক্রিয়াও জানিয়েছিলেন হার্শা।

অমিতাভ বচ্চনের টুইটকে সমর্থন দিয়ে ভারতের আরেক অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়না ‘দোষী’ ধারাভাষ্যকার বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন। শুধু রায়না কিংবা ধোনিই নন, রোহিত শর্মাসহ আরো কিছু সিনিয়র ক্রিকেটার তার প্রতি ক্ষোভ জানিয়েছিলেন। এ ব্যপারে তেমন কাউকে দায়ী করেননি হার্শা ভোগলে; কিন্তু তিনি টুইট করে বলেন, ‘শচীন-সৌরভ-রাহুলদের সময়টা সত্যিই অলাদা ছিল। ওরা সব বিষয়ে মাথা ঘামাতো না।’

এই টুইটেই স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে বর্তমান সময়ে ভারতীয় দলের ক্রিকেটাররা খেলার বাইরের বিষয়কে নিয়েও বেশি মাথা ঘামান। হার্শাকে আইপিএল থেকে বাদ দেয়ার ব্যপারে হয়তো তাদেরও অবদান রয়েছে। সমস্যটা স্পষ্ট না হলেও হার্শার ইঙ্গিতটা ঠিকই স্পষ্ট। 

Source : jagonews24

Post a Comment