চট্টগ্রামে হেলে পড়েছে ৫টি বহুতল ভবন, আহত ২৫


চট্টগ্রামে ভূমিকম্পে ৫টি বহুতল ভবন হেলে পড়েছে। এসময় হুরোহুরি করে নামতে গিয়ে আহত হয়েছেন ২৫ জন। এরমধ্যে গুরুতর অবস্থায় ৯ পোশাক শ্রমিক ও এক শিক্ষার্থীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়ছে। ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সূত্র এসব খবর নিশ্চিত করেছে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, সন্ধ্যা ৭টা ৫৭ মিনিটে সৃষ্ট ভূমিকম্পে সারাদেশের ন্যায় কেপে ওঠে চট্টগ্রামও। এসময় প্রাণ বাঁচাতে নগরীর বিভিন্ন ভবন থেকে লোকজন বাইরে বের হয়ে আসে। হুরোহুরি করে নামতে গিয়ে নগরীর অক্সিজেন ট্যানারি বটতলা এলাকায় ২০ পোশাক শ্রমিক আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় ৯ জনকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপপুলিশ পরিদর্শক জহির খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। আহতরা সবাই ওই এলাকার সাদ মুসা গ্রুপের মালিকানাধীন একটি পোশাক কারখানার শ্রমিক বলে জানা গেছে।

এছাড়া ভূমিকম্পের সময় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাহজালাল হলের ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ে আহত হয়েছে এক শিক্ষার্থী। তাকেও চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তবে তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম-পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি।

এদিকে ভূমিকম্পে নগরীতে পাঁচটি বহুতল ভবন হেলে পড়েছে। এরমধ্যে হালিশহর বি ব্লকের ২নং রোডে ৫তলা একটি ভবন পাশের ৬তলা অপর একটি ভবনের উপর হেলে পড়ে। নগরীর আগ্রাবাদ বারেক মিঞা স্কুলের পাশে বিএস গার্মেন্টসের পরিত্যক্ত একটি ভবন অপর একটি ৬তলা ভবনের উপর হেলে পড়েছে।

নগরীর ব্যস্ততম এলাকা নিউ মার্কেটের পশ্চিম পাশে রেয়াজুদ্দিন বাজারেও একটি বহুতল ভবন হেলে পড়ার সংবাদ পাওয়া গেছে। এছাড়া জুবিলি রোড এলাকায় ১৭৩নং ৩তলা বিল্ডিংটি পাশের এবি ব্যাংকের ভবনের উপর হেলে পড়েছে।

চাঁন্দগাও আবাসিক এলাকার বি ব্লকের ৮নং রোডের ৫৩৮নং ভবনটি পাশের একটি ভবনের উপর হেলে পড়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন চাঁন্দগাও থানার অফিসার ইনচার্জ শাহজাহান কবির।

আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মকর্তারা হেলে পড়া এসব ভবন তদারকি করছেন এবং ঘটনাস্থলে রয়েছেন বলে ফায়ার ম্যান বিশু কান্তি জানান। এছাড়া জেলার বিভিন্ন উপজেলায়ও এ ভূমিকম্পে সাধারণ মানুষের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

ফটিকছড়িতে কিছুক্ষণের জন্য বন্ধ হয়ে নির্বাচনী প্রচারণাও। তবে এখনো পর্যন্ত বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

Source : jagonews24

Post a Comment