ডিভিডিতে নয় সিনেমা সংরক্ষণ হবে পানিতে!


গোটা ইন্টারনেট না হোক অন্তত কয়েকটা সিনেমা ভরে ফেলা যাবে কয়েক ফোঁটা পানির মধ্যে। আশ্চর্য শোনালেও এমনটাই করছেন হার্ভার্ড গবেষক তথা জিন-বিজ্ঞানী জর্জ ম্যাকডোনাল্ড চার্চ। 

এই ডিএনএ বিজ্ঞানী বেশ কয়েকবছর আগে খবরের শিরোনামে এসেছিলেন লুন্ত হয়ে যাওয়া 'ম্যামথ ' ফিরিয়ে আনার প্রকল্প ঘোষণা করে। এবার তাঁর কার্যকলাপ সরাসরি বিজ্ঞানের সঙ্গে বিনোদন জগতের। 

১৯০২ সালের 'এ ট্রিপ টু মুন ' নামের একটি ফরাসি ছবি নাকি তিনি পুরে ফেলেছেন কয়েক ফোঁটা তরলের মধ্যে, জিন প্রযুক্তির মাধ্যমে। যদিও সিনেমার এই 'ডিএনএ কোডিং' মোটেও সহজ সরল পদ্ধতি নয়। তবুও সংক্ষেপে অতি সরলীকৃত পদ্ধতিটি হল, ছবিটির প্রতিটি দৃশ্য, তার রঙের রকমফের অনুযায়ী পরিবর্তিত হয়ে যায় ডিজিটাল সিগন্যালে শূন্য এবং এক -এ। তারপর সেই কোড পরিবর্তিত হয়ে যায় এসিজিটি বা অ্যাডেনিন , সাইটোসিন , গুয়ানিন , থাইমিন অর্থাৎ ডিএনএ এর চারটি কেমিক্যাল বেসে। 

এরপর তরলে সংরক্ষিত সেই ডিএনএ আধারই হয়ে উঠবে সিনেমা লাইব্রেরি। 

প্রফেসর চার্চ-এর বক্তব্য , এটা এখনও পরীক্ষামূলক পর্যায়ে রয়েছে। এমন নয় যে তরলের আধার কোনও যন্ত্রে ফিট করে দিলে সিনেমা দেখা যাবে। মূলত এই প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে সিনেমা সংরক্ষণের জন্য। এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে বিপুল পরিমাণ সিনেমা অতি অল্প জায়গায় সংরক্ষিত করে রাখা যাবে। 
সূত্র : বাংলামেইল২৪

Post a Comment