ভক্তদেরও নিরাশ করেননি মুস্তাফিজ


কাটার মাস্টার মুস্তাফিজ আগামীকাল (৩ এপ্রিল রবিবার) বিকালে যশোর থেকে বিমান যোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন। ছুটিতে এসে বাড়ী ছেড়ে খুব বেশি বাইরে যাওয়া হয়নি তার। বাড়ির বাইরে যাওয়ার যে সুযোগ ছিল না! কারণ, মুস্তাফিজ বাড়ি এসেছে, এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়তেই নিজের গ্রাম তো বটেই, দুর-দুরান্ত থেকেও ভক্তরা তার বাড়িতে এসে ভিড় করেছেন প্রতিদিন, প্রতিক্ষণ।

মুস্তাফিজ নিজেই জাগো নিউজকে জানালেন এ তথ্য। তিনি বলেন, ‘অনেক দূর-দূরান্ত থেকে শুভাকাঙ্ক্ষী এবং ভক্তরা বাড়ীতে এসেছেন দেখা করার জন্য। আমি বাইরে গেলে দূর থেকে কষ্ট করে এসেও তারা দেখা পাবেন না, কষ্ট নিয়ে ফিরে যাবেন- একথা ভেবেই বাইরে খুব একটা যাওয়া হয়নি। রাত ১২টার আগে ঘুমাতে যাইনি কখনও। কারণ তখনও প্রতিবেশীসহ বাইরে থেকে আসা শুভাাকাঙ্খিরা এসেছেন।’
এদিকে, বিস্ময়কর ক্রিকেটার মুস্তাফিজের ছুটিতে গ্রামে আসার কথা শুনে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ভক্তরা প্রতিদিনই তার বাড়ীতে ভিড় জমিয়েছে। পাশাপাশি তার সঙ্গে ছবি তুলতেও ভোলেননি তাদের কেউই।

সাতক্ষীরা শহর থেকে প্রত্যন্ত এলাকা কালিগজ্ঞের তারালি ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গ্রামের মুস্তাফিজ ক্রিকেট দিয়ে বিশ্বজয়ের পাশাপাশি জয় করেছেন ভক্তদের হৃদয়ও। যে কারণে দেখা গেলো দূর-দূরান্ত থেকে আগত সবার সঙ্গেই স্বাচ্ছন্দে, হাসি-আনন্দে স্বাভাবিক ভঙ্গিতে কথা বলেছেন। হঠাৎ তারকা হয়ে যাওয়ার কোন গরিমাই তিনি দেখালেন না ভক্তদের সাথে। বরং হাসিমুখে সব সময় কথা বলায় খুশি তার ভক্তরাও।
মুস্তাফিজের সাথে সাক্ষাতের উদ্দেশ্যে ৭৫ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে তার বাড়ীতে এসে হাজির হন সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটা প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক আব্দুল মতিন। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, মুস্তাফিজের ব্যাবহারে আমি খুবই মুগ্ধ। যখন তার বাড়ীতে হাজির হলাম, দেখলাম মুস্তাফিজ পুকুরে গোসল করছেন। দেখে মনেই হচ্ছিল না, এই মুস্তাফিজ সেই মুস্তাফিজ তো! যে মাতিয়ে বেড়াচ্ছেন পুরো বিশ্ব। যিনি আজ ক্রিকেট ইতিহাসে জীবন্ত কিংবদন্তি। বিশ্বের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানদের নাস্তানাবুদ করেছেন ইতিমধ্যে।

ক্রিকেট বিস্ময় মুস্তাফিজ জাগো নিউজকে আরও বলেন, ‘ঢাকায় যাওয়ার পর বিসিবি অনুমতি দিলে আইপিএলে খেলতে যাবো।’ তিনি সকলের কাছে দোয়া চেয়ে বলেন, ‘বাংলাদেশের ক্রিকেটকে যেন অনেক দূর এগিতে নিয়ে যেতে পারি, সে জন্য দোয়া করবেন। আমার ও আমার পরিবারের জন্যও দোয়া করবেন।’

শনিবার দুপুরে যখন তার সঙ্গে কথা বলছিলাম, তখনও মুস্তাফিজ তার নিজের মাঠে বন্ধু ও শিশুদের নিয়ে বাড়ির পাশের মাঠে খেলায় মেতে উঠেছেন।

Source : jagonews24

Post a Comment