দেশজুড়ে রবি’র ওয়াই-ফাই সেবা


দেশজুড়ে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দিতে বৃহৎ প্রকল্প হাতে নিয়েছে মোবাইল ফোন অপারেটর রবি। প্রকল্পটির আওতায় আগামী ৬ মাসের মধ্যে ৫০০টি শীর্ষস্থানীয় রেস্তোরাঁ, ক্যাফে ও রিটেল আউটলেটে উচ্চগতির ওয়াই-ফাই সেবা দেবে অপারেটরটি।

মঙ্গলবার রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেয় রবি। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

তারানা হালিম বলেন, সারাদেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ওয়াই-ফাই থাকবে এটা সত্যিকার অর্থে আমার স্বপ্ন ছিল। আমার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করায় রবিকে ধন্যবাদ। জাতীয় বাতায়নের তথ্য ভয়েস কলের মাধ্যমে সবার কাছে পৌঁছে দিয়ে ও তরুণ প্রজন্মকে ইন্টারনেটের নিরাপদ ব্যবহারের পরামর্শের উদ্যোগ প্রশংসনীয়। অন্যা অপারেটরগুলো যদি এই উদ্যোগ নেয় তাহলে আমাদের সবার উন্নয়নের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে।

তিনি আরো বলেন, জনগণ যেহেতু ক্রমশ ডিজিটাল জীবনধারায় অভ্যস্থ হয়ে উঠেছে, তাই উচ্চগতির ইন্টারনেটের চাহিদা মেটাতে এই পদক্ষেপ সহায়ক হবে।

রবির এই প্রকল্পের আওতায় ১০০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিমানবন্দর ও রেল স্টেশনসহ ১০টি পাবলিক প্লেস, ৩৫০টি বাস ট্যাক্সি ও ট্রেনে এই ওয়াইফাই সেবা প্রদান করা হবে। যেসব গ্রাহকরা কমপক্ষে ১ জিবি’র মোবাইল ইন্টারনেট প্যাক কিনেছেন তারা এই ফ্রি ওয়াইফাই ব্যবহার করতে পারবেন। ভবিষ্যতে ওয়াইফাই’র জন্য বিভিন্ন ডাটা বান্ডেল অফার প্রদান করবে রবি।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন রবি’র ম্যানেজিং এডিটর অ্যান্ড সিইও সুপুন বীরাসিংহে এবং চিফ কর্পোরেট ও পিপল অফিসার (সিসিপিও) মতিউল ইসলাম নওশাদ।

এসময় মতিউল ইসলাম নওশাদ বলেন, জনগণের জন্য প্রযুক্তি সহজলভ্য করতে রবি’র এই উদ্যোগের ফলে ডিজিটাল ক্ষেত্রে বাংলাদেশের বৈশ্বিক অবস্থান আরো এগিয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত সুপুন বীরাসিংহে বলেন, ‘সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্য বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে রবি অঙ্গীকারবদ্ধ এবং এই লক্ষ্য বাস্তবায়নের মূল হাতিয়ার ইন্টারনেটের সহজলভ্যতা। এজন্য ডিজিটাল বৈষম্য দূর করতে কাজ করে যাচ্ছে রবি।’
সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment