রিংগিতের মান বাড়ায় স্বস্তিতে মালয়েশিয়া প্রবাসীরা


অবশেষে মান বেড়েছে মালয়েশিয়ান রিংগিতের। ফলে  দেশটিতে কর্মরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে কিছুটা স্বস্তি দেখা দিয়েছে।   

গত বছর রিংগিতের মান কমে যাওয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের রেমিটেন্স প্রেরণে কিছুটা ভাটা পড়েছিল। মান ধ্বসের কারণে ডলারের বিপরীতে রিংগিতের মূল্য ছিল হতাশাজনক। 

প্রতি ডলারের বিনিময় মূল্য গত মাসেও ছিল প্রায় ৪.৩৬ রিংগিত। অন্যদিকে ১ রিংগিতের বিনিময় মূল্যও কমে দাঁড়িয়েছিল বাংলাদেশি ১৭.২০ টাকা। 

গত ৬ বছরে রিংগিতের মান রেকর্ড পরিমাণ কমেছিল। বর্তমানে তা বেড়ে ফের স্বাভাবিক পর্যায়ে আসতে শুরু করেছে। 

বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) ডলারের মান দাঁড়িয়েছে ৩.৯১ রিংগিতে। আর এখন প্রতি রিংগিতের বিনিময়ে পাওয়া যাচ্ছে ২০.১০ টাকা।

স্থানীয়রা আশা করেছিলেন, গত মে মাসে সরকারের নতুন চালু করা দ্রব্য এবং পরিষেবা কর (জিএসটি) ৬ শতাংশ বৃদ্ধির পর মালয়েশিয়ার অর্থনৈতিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হবে। কিন্তু বাস্তবে তা হয়নি।

জানা গেছে, জ্বালানি তেলের মূল্যহ্রাস এবং রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে মালয়েশিয়ার অর্থনীতিতে মন্দাবস্থা বিরাজ করছে। এর প্রভাব পড়েছিল প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিকদের উপর। গত কয়েক বছরের মধ্যে রিংগিতের মূল্য গত বছর সবচেয়ে নিচে নেমে যায়। এক ডলারের বিপরীতে মূল্য দাঁড়ায় ৪ দশমিক ২৪ রিংগিতে। আর বাংলাদেশি মুদ্রায় ১ রিংগিতের মূল্য নেমে যায় ১৮ দশমিক ৫৪ টাকায়।

বিগত বছরে  রিংগিতের মূল্য প্রায় ৮ টাকা কমে যাওয়ায় দেশে বৈধ-অবৈধভাবে টাকা পাঠানো প্রায় বন্ধ হয় যায়। যার প্রভাব পড়েছিল মালয়েশিয়ায় বসবাসরত বাংলাদেশি শ্রমিকদের আয়ের উপর। তাদের বেতন ৬ মাস আগে যেখানে ছিলো ১৫০০ রিংগিত বর্তমানে তা কমে ১২০০ রিংগিতে নেমেছে। 

প্রবাসী বাংলাদেশিরা জানান, আগে দেশে প্রতিমাসে ১ হাজার রিংগিত পাঠানো হত। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২৫ হাজার টাকা। কিন্তু বর্তমানে তা ২০ হাজার টাকারও নিচে নেমে গেছে। 
সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment