কান্না করায় শিশুকে আছড়ে হত্যা


কান্না করায় হাফিজুল শেখ (৩) নামে এক শিশুকে আছড়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। তাও আবার বাড়িওয়ালার স্ত্রীর বিরুদ্ধে। এখন হত্যার অভিযোগে বাড়িওয়ালার স্ত্রীকে হন্য হয়ে খুঁজছে পুলিশ। কিন্তু পলাতক থাকায় পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করতে পারছে না।

বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) রাতে বরিশালে বানারীপাড়া উপজেলায় এ ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) এ ব্যাপারে স্থানীয় বানারীপাড়া থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। 

শিশু হাফিজুল ওই উপজেলা পৌর এলাকার টিঅ্যান্ডটি মোড়ের বাদল মৃধার বাড়ির ভাড়াটিয়া রিকশাচালক রিপন শেখের ছেলে। আর অভিযুক্ত গৃহবধূর নাম নুপুর বেগম। তিনি বাড়িওয়ালা বাদল মৃধার স্ত্রী ও স্থানীয় বধূসাজ বিউটি পার্লারের মালিক।

পুলিশ জানায়, রাতে ঘরে বসে কান্না করছিল শিশু হাফিজুল। কান্না না থামায় ক্ষিপ্ত হয়ে বাড়িওয়ালার স্ত্রী নুপুর বেগম এসে শিশুটিকে আছাড় দেন। এতে শিশুটি বুক এবং মাথায় গুরুতর আঘাত পায়। এসময় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী রাতেই বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটির শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হলে রাতেই তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। কিন্তু পরিবার আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল থাকায় তাকে আর ঢাকায় নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি। পরবর্তীতে শিশুটিকে ফের উপেজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে তার পরিবার। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গভীর রাতে শিশুটির মৃত্যু হয়।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বানারীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল আহসান জানান, এ ঘটনায় বাড়িওয়ালার স্ত্রী নুপুর বেগমকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। কিন্তু ঘটনার পরপরই তিনি গাঢাকা দেয়ায় গ্রেপ্তারে সফলতা পাওয়া যাচ্ছে না। তবে তাকে গ্রেপ্তারে একাধিক টিম মাঠে কাজ করছে।
সূত্র : বাংলামেইল২৪

Post a Comment