পানামা পেপারস কেলেঙ্কারি : বিশেষজ্ঞ প্যানেল গঠন


অফশোর অর্থনৈতিক শিল্পের স্বচ্ছতা নিশ্চিতে সহায়তার জন্য একটি আন্তর্জাতিক প্যানেল গঠন করেছে পানামা। দেশটির আইনীপরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান ‘মসাক ফনসেকার’ এক কোটি ১৫ লাখ গোপন নথি ফাঁসের পর এই প্যানেল গঠনের কথা জানালো। 

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মসাক ফনসেকার গোপন নথি ফাঁসের পর ক্লায়েন্টরা যাতে নিষেধাজ্ঞা এড়াতে পারে সে লক্ষেই এ পদক্ষেপ নিচ্ছে পানামা। এই নথি ফাঁসের পর বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে ইতোমধ্যে ধনী ও ক্ষমতাশালী ব্যক্তির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট জুয়ান কারলস ভ্যারেলা বলেন, এই ইস্যুতে পানামা অন্যান্য দেশের সঙ্গে কাজ করবে।
টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে তিনি বলেন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে পানামার সরকার দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে একটি স্বাধীন কমিশন গঠন করবে। কমিশন কীভাবে এই কাজ করা হয়েছে তা তদন্তের পর পদেক্ষেপ নেওয়ার প্রস্তাব করবে, যা বৈধ উপায়ে অর্থনৈতিক স্বচ্ছতা বৃদ্ধি করতে কাজ করবে।

পানামার আইনী পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান মসাক ফনসেকার ১ কোটি ১৫ লাখ নথি জার্মান দৈনিক জিটডয়েচ সাইতংয়ের হাতে আসলে তারা ওই নথিগুলো ওয়াশিংটনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টসকে (আইসিআইজে) দেয়। তাদের এক বছরের অনুসন্ধানের মধ্য দিয়ে বেরিয়ে আসে কর ফাঁকির চাঞ্চল্যকর সব তথ্য। বিশ্বের ২৪০ দেশের প্রভাবশালী ব্যক্তি, খেলোয়াড়, রাষ্ট্রপ্রধান, সেলিব্রেটিসহ আরো অনেকেই জড়িত। এ তালিকায় এখন পর্যন্ত  বাংলাদেশের ৩২ ব্যক্তি ও২ কোম্পানির নাম উঠে এসেছে।  

Source : jagonews24

Post a Comment