বিরামপুরকে জেলা ঘোষণার দাবিতে মহাসমাবেশ


দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর, নবাবগঞ্জ, ঘোড়াঘাট, ফুলবাড়ী, হাকিমপুর ও বিরামপুর উপজেলাকে নিয়ে পৃথক বিরামপুর জেলা ঘোষণার দাবিতে সম্মিলিত পেশাজীবী ঐক্য পরিষদের ডাকে মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টায় দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ মহাসড়কের বিরামপুর ঢাকা মোড়ে এ মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মহাসমাবেশে সম্মিলিত পেশাজীবী ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম সরকারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর-৬ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিরামপুর পৌর মেয়র লিয়াকত আলী সরকার টুটুল, হাকিমপুর পৌর মেয়র জামিল হোসেন চলন্ত, দিনাজপুর জেলা যুবলীগ সভাপতি অ্যাড. দেলোয়ার হোসেন, ঢাকাস্থ দিনাজপুর দক্ষিণ অঞ্চল উন্নয়ন ফোরাম সম্পাদক লায়ন মোজাম্মেল হক, নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সায়েম সবুজ, প্রবীণ আইনজীবী এ্যাড. মওলা বক্স, রহুল আমিন সরদার, সাইফুল ইসলাম, উপজেলা ন্যাপ সভাপতি আ. আজিজ সরকার ও উপজেলা জাসদ সভাপতি শাহ আলম বিশ্বাস। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন উপজেলার রাজনীতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশে বক্তাগণ বলেন, ৩৮ বছর ধরে দিনাজপুর দক্ষিণাঞ্চলের ৬ উপজেলার মানুষ বিরামপুরকে জেলা ঘোষণার দাবিতে আন্দোলন করে আসছে। বর্তমান গণতান্ত্রিক সরকার এই দাবির প্রতি গুরুত্ব দিয়ে বিরামপুরকে জেলা ঘোষণা করবেন বলে তারা প্রত্যাশা করেন। আর দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাবেন।

মহাসমাবেশকে সফল করার লক্ষ্যে সকাল থেকেই দোকানপাট, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, রিকশা-ভ্যানসহ সকল প্রকার যানবাহন বন্ধ রেখে সর্বস্তরের জনসাধারণ ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে দলে দলে ঢাকা মোড়ে উপস্থিত হয়। 

বিরামপুর থানা পুলিশের ভাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমিরুজ্জামান জানান, গণ-মানুষের দাবির শান্তিপুর্ণ নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনে পুলিশের শ্রদ্ধা রয়েছে। এ ব্যাপারে আমাদের সহযোগিতার দ্বার খোলা রয়েছে। আশা করি আন্দোলনরত সকলে যেন কর্মসূচি শান্তিপূর্ণভাবে পালন করতে পারে।
সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment