**TRY FREE HUMAN READABLE ARTICLE SPINNER/ARTICLE REWRITER**

মাদারীপুরে গরমে বাড়ছে ডায়রিয়া রোগী

প্রচণ্ড গরমে মাদারীপুরে গত কয়েক দিনে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বাড়লেও চাহিদা মোতাবেক চিকিৎসা সেবা না পেয়ে ভোগান্তিতে পড়েছে রোগিরা। হাসপাতালে পর্যাপ্ত ঔষধ থাকার পরও দরিদ্র রোগীরা ঔষধ পাচ্ছে না বলে অভিযোগ রোগীদের।

সোমবার সরেজমিন মাদারীপুর সদর হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, বিভিন্ন এলাকা থেকে চিকিৎসা নিতে আসা অনেক রোগীই হাসপাতালের মেঝেতে শুয়ে আছেন। অধিকাংশ রোগীদের অভিযোগ হাসপাতাল থেকে খাবার স্যালাইন ছাড়া অন্য কোনো ঔষধ দেয়া হয় না। এতে করে ভোগান্তিতে পড়েছে দরিদ্র রোগীরা।

নুরনবী (২৮) নামে এক রোগী জানান, ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। সেবনের সব ঔষধ তাকে ফার্মেসী থেকে কিনতে হচ্ছে। 

অপর এক রোগী তাজ উদ্দিন (৪০) বলেন, হাসপাতাল থেকে একটি কলেরা স্যালাইন ছাড়া আর কিছু দেয়নি। বাকি সব ঔষধ বাইরে থেকে কিনে নিতে হয়।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, অন্য মাসের তুলনায় বর্তমানে ডায়রিয়া রোগে আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুন। সোমবার সকালেই  হাসপাতালে ২৪ জন ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন। এসব রোগীরা সরকারিভাবে সরবরাহকৃত ডায়েরিয়া রোগের ঔষধ না পেয়ে জীবন বাঁচানোর তাগিদে ফামের্সী থেকে ঔষধ কিনে সেবন করছেন।

এ ব্যাপারে মাদারীপুর সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. শশাঙ্ক ঘোষ জানান, সরবরাহ সঙ্কটের কারণে সব ঔষধ দেয়া সম্ভব হচ্ছেনা। মূল ঔষধ রোগীদের সরবারহ করা হয়। 

তবে অধিকাংশ রোগীর দাবি খাবার স্যালাইন ছাড়া অন্য কোনো ঔষধ দেয় না হাসপাতাল থেকে। রোগীরা টাকা দিলেই হাসপাতাল থেকে ঔষধ দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন চিকিৎসা নিতে আসা ওসমান নামের এক শিশুর আত্মীয়। 

এ ব্যপারে মাদারীপুরের সিভিল সার্জন ডা. দিলীপ কুমার দাস বলেন, হাসপাতালে পর্যাপ্ত ঔষধ রয়েছে। আমি আবাসিক চিকিৎসককে বলে দিয়েছি রোগীদের প্রয়োজনীয় ঔষধ সরবরাহ করার জন্য। অতিরিক্ত গরমের কারণে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বেড়েছে বলেও তিনি জানান। 

সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment