সৌন্দর্য বর্ধনে ভেষজ


সৌন্দর্য আর একটু বাড়াতে চেষ্টার ত্রুটি করে না মেয়েরা। এজন্য একটু সময় পেলেই হলো। বসে পড়েন রূপচর্চায়। তবে সৌন্দর্য বাড়াতে শুধু ফেসিয়াল কিংবা স্ক্রাব করলেই হবে না। পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়াও সমান জরুরি। এতে শুধু সৌন্দর্যই বাড়ে না, স্বাস্থ্যও ভালো থাকে। বিশেষ করে পেটের যে কোন সমস্যা দূর করতে ভূমিকা রাখে এই ভেষজ। কাজেই ত্বক এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ভেষজ ব্যবহারের বিকল্প নেই।

অ্যালোভেরা
এই ভেষজটি স্বাস্থ্য এবং সৌন্দর্য চর্চা উভয় ক্ষেত্রেই ব্যবহার করা হয়। এটি রোদে পোড়া ভাব কমিয়ে ত্বককে সুরক্ষা করে। ব্রণের সমস্যাসহ ত্বকের আরও নানা সমস্যা সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে অ্যালোভেরা। সেইসঙ্গে বয়সের চাপ কমাতেও সাহায্য করে এটি।

ল্যাভেন্ডার
সৌন্দর্য চর্চায় সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় ল্যাভেন্ডার। মিষ্টি সুবাসের কারণে সাধারণত এটি সুগন্ধি চিকিংসায় ব্যবহার করা হয়। এই ভেষজটি স্নায়ুর উপর এক ধরনের শীতল প্রভাব ফেলে। এটি সাধারণত এন্টিসেপটিক, বেদনানাশক এবং ডিওডোরেন্ট হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

গাঁদা ফুল
এতে অ্যান্টিফামেটরি, অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ফাংশাল বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এগুলো ত্বককে নানা ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে। ত্বকে পোড়াভাব, ফুসকুড়ি দূর করতেও ভূমিকা রাখে গাঁদা।

হলুদ
সৌন্দর্য চর্চায় এটিও উৎকৃষ্ট ভেষজ। এটি শুধু রান্না করতেই ব্যবহার করা হয় না, একইসঙ্গে ত্বকের সমস্যা সমাধানেও ব্যবহার করা হয়। এতে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টিফামেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা ত্বকের ফুসকুড়ি এবং পোড়া ভাব কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

তুলসি
প্রাচীনকাল থেকেই এই মহৌষধটি ব্যবহৃত হয়ে আসছে। একইসঙ্গে রুপচর্চায় বিশেষ করে ক্রিম, শ্যাম্পু এবং সুগন্ধিতেও এটি ব্যবহার করা হয়। তুলসি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ফাইটোনিউট্রিয়েন্টের সমৃদ্ধ উৎস। তুলসি পাতা বেটে নিয়মিত লাগালে তা মুখের অবাঞ্চিত লোম দূর করতেও ভূমিকা রাখে।

রোজমেরি
শুধু সৌন্দর্য চর্চায় নয়, ওজন কমাতেও ভূমিকা রাখে এই ভেষজ। চুলকে নরম এবং উজ্জ্বল করার ক্ষেত্রে রোজমেরি কন্ডিশনার হিসেবে ব্যবহার করা হয়। এটি চাপ কমায়, স্মৃতিশক্তির উন্নতি করে এবং মনোযোগ বাড়াতে সাহায্য করে।

ক্যামোমিল
সাধারণত মেকআপ, সানস্ক্রিন এবং কিনজারে এই ভেষজটি ব্যবহৃত হয়। এতে অ্যান্টি-ফামেটরি এবং অ্যান্টি সেপটিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা ত্বক সুন্দর রাখতে সাহায্য করে।
সূত্র : বাংলামেইল২৪

Post a Comment