ইসলামিক রীতি না মানায় চুল হারালেন সৌদি ফুটবলার


ইসলামিক রীতি না মানায় চুল হারাতে হয়েছে এক সৌদি ফুটবলারকে। ভাবছেন কেন? আসলে ফুটবলাররা চুল নিয়ে অতিরিক্ত বাড়াবাড়ি করেন। তাদের উদ্ভট হেয়ার কাট স্কুলের বাচ্চারাও অনুকরণ করে। এতে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হয় বাবা-মাকেও। কিন্তু সৌদি আরবে খেলোয়ারদের চুল ইসলামিক রীতি অনুসারে হতে হবে। খেলোয়াররা যত স্টাইলই করুক না কেন চুলের ক্ষেত্রে এর ব্যতিক্রম করতে পারেন না।

দেশটির স্পোর্টস ও অলিম্পিক কমিটিতে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আদেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এই আদেশ না মানায় এক ফুটবলারকে ধরে মাঠের পাশেই চুল কেটে দেয়া হয়েছে। খেলা শুরুর আগ মুহূর্তে তার চুল কেটে দেয়ার একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে। ওই ভিডিওতে দেখা গেছে বেচারা ফুটবলারের মাথার চুল কেটে দিচ্ছেন রেফারি।

দেশটির ফুটবল ফেডারেশনে খেলোয়ারদের চুল রাখার বিষয়েও কিছু নিয়ম মেনে চলতে হয়। এক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের   কিছু আইন আছে। সৌদি আরবের স্থানীয় ক্লাবগুলোতে বহু বিদেশি ফুটবলার খেলতে আসেন। ইসলামিক আইন অমান্য করলে তাদেরও শাস্তি পেতে হয়। এক্ষেত্রে কোনো ছাড় নেই।

Source : jagonews24

0 Response to "ইসলামিক রীতি না মানায় চুল হারালেন সৌদি ফুটবলার"

Post a Comment