অসুস্থ ব্যক্তির নামাজের পদ্ধতি


নামাজ দাঁড়িয়ে আদায় করাই জরুরি। কিন্তু নামাজি ব্যক্তি যদি অসুস্থ হয় এবং দাঁড়াতে সক্ষম না হয় তবে নামাজ না পড়ার কোনো হুকুম নেই। বরং অসুস্থ ব্যক্তিকেও নামাজ পড়তে হবে। এ ব্যাপারে রয়েছে ইসলামি চিন্তাবিদদের পরামর্শ এবং বিশ্বনবি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের হাদিস। যা এখানে তুলে ধরা হলো-

>> নামাজি অসুস্থ হলে এবং দাঁড়াতে অপারগ হলে তাকে চতুষ্পদ (চারজানু) হয়ে বসে অথবা তাশাহহুদের বৈঠকের ন্যায় বসে নামাজ আদায় করতে হবে।

>> যদি বসেও আদায় করতে অক্ষম হয় তবে ডান পার্শ্বের উপর ভর দিয়ে। তাও যদি কষ্টকর হয় তবে বাম পার্শ্বের উপর ভর দিয়ে নামাজ আদায় করতে হবে।

>> এ ভাবেও যদি নামাজ পড়তে সক্ষম না হয়, তবে কিবলার দিকে পা দিয়ে চিত হয়ে শুয়ে মাথা দ্বারা বুকের দিকে ইশারা করে রুক ও সিজদা আদায় করবে। তবে সিজদার সময় রুকুর চেয়ে একটু বেশি মাথা ঝুকাবে।

>> সর্বোপরি জ্ঞান থাকা পর্যন্ত কোনো নামাজির নামাজ মাফ হবে না। অসুস্থ ব্যক্তি তার সুবিধা মতো নামাজ আদায় করবে।

হাদিসে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম  অসুস্থ ব্যক্তির নামাজের বিবরণ দিয়েছেন-
 
হজরত ইমরান ইবনে হুসাইন রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমার অশ্ব রোগ ছিল, তাই এ অবস্থায় কিভাবে নামাজ আদায় করবো তা রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে জিজ্ঞাসা করলাম। তিনি বললেন, ‘দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় কর, যদি না পার তবে বসে কর, তাও যদি না পার তাহলে এক পার্শ্বের উপর আদায় কর।’ (বুখারি)

উপরের হাদিস থেকে বুঝাই যায় যে, নামাজের গুরুত্ব কত অধিক। সুতরাং মহান আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে সুস্থতা ও অসুস্থতার মাঝে যথা সময়ে নামাজ আদায় করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Source : jagonews24

Post a Comment