পুরস্কৃত হলেন নাগাসাকি পিস পার্কের তিন ভাস্কর


জাপানের নাগাসাকি পিস পার্কে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে একটি শান্তির ভাস্কর্য স্থাপনের লক্ষ্যে নির্বাচিত ভাস্কর্যের ভাস্করদের পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। 

বুধবার গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। 

প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে অনিন্দিয়া পন্ডিতের শিল্পকর্ম। মন্ত্রী তার হাতে পাঁচ লাখ টাকার চেক ও সনদ তুলে দেন। দ্বিতীয় স্থান লাভ করে মোহাম্মদ এমরান হোসেন ও তৃতীয় হয় মো. আসিফুর রহমানের ভাস্কর্য। পুরস্কার হিসেবে দ্বিতীয় স্থান অর্জনকারী তিন লাখ টাকা ও একটি সনদ এবং তৃতীয় স্থান অর্জনকারী দুই লাখ টাকা ও একটি সনদ পান। এছাড়াও আরো সাতটি ভাস্কর্যের শিল্পীকে সম্মানিত করা হয়।

অনুষ্ঠানে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন, আমরা শান্তির পক্ষে। বর্তমান সরকার শান্তির পক্ষে কাজ করে যাচ্ছে। জাপানের নাগাসাকিতে ১৯৪৫ সালের ৯ আগস্ট ‘লটল বয়’ নামে যে আণবিক বোমা ফেলা হয় তাতে লক্ষ লোক প্রাণ হারায়। এর বিপক্ষে জনমত গড়ে তুলতে ১৯৫৫ সালে নাগাসাকি পিস পার্ক নির্মাণ করা হয়। শেখ হাসিনা জাপান সফরকালে এ পার্কে বাংলাদেশের ভাস্কর্য স্থাপনের ব্যবস্থা করে শান্তির পক্ষে তার অবস্থান তুলে ধরেছেন।

মন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যতে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় থেকে বড় কোনো স্থাপনা নির্মাণ করা হলে এভাবে উন্মুক্ত প্রতিযোগিতার মাধ্যমে নকশা অনুমোদন করা হবে। তিনি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীসহ বিজয়ীদের অভিনন্দন জানান।

গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শহীদ উল্লা খন্দকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন ভাস্কর্য নির্বাচন জুড়ি বোর্ডের প্রধান স্থপতি রবিউল হুসাইন, অতিরিক্ত সচিব এম বজলুল কবীর চৌধুরী।
সূত্র : জাগোনিউজ২৪

Post a Comment