‘আমার বাবা চোর’ যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীর মাথায় লিখলো স্বামী


শ্বশুরবাড়ির দাবি মতো যৌতুক দিতে না পারায় ‘অভিনব শাস্তি’ পেলেন এক গৃহবধূ। শ্বশুর বাড়ির লোকজন গৃহবধূর মাথায় লিখে দিলো ‘আমার বাবা চোর’। সেই সঙ্গে, তার শরীরে বাপের বাড়ির লোকজনকে উদ্দেশ করে লেখা হয়েছে গালিগালাজও।

সম্প্রতি ভারতের রাজস্থানের জয়পুরে এ আলোচিক ঘটনা ঘটেছে।
স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে জানা যায়, ২০১৫ সালে ১৪ জানুয়ারি জয়পুরের রাজগড়ে বিয়ে হয় ঘটনার স্বীকার মালতির (ছদ্মনাম)। 

মালতি জানিয়েছেন, বিয়ের কিছুদিন পর থেকে যৌতুক না দেয়ার জন্য অত্যাচার শুরু হয়। বাবা গরিব। তাই বাপের বাড়িতে কিছু না জানিয়ে সহ্য করতে থাকেন সবকিছু। একদিন পণের ৫১ হাজার টাকা না দেয়ায় ওই তাকে মাদক খাইয়ে বেহুঁশ করা হয়। 


এরপর তার স্বামী ও পরিবারের লোকেরা গৃহবধূর মাথায় বিশেষভাবে ‘আমার বাবা চোর’ লিখে দেন। শরীরের একাধিক জায়গাতে গালিগালাজ লিখে দেয়া হয়। তিনি অ্যাসিড দিয়ে তা মোছার চেষ্টা করেন। ফল হয় উলটো। শরীরের একাধিক জায়গায় ঘা হয়ে গেছে। 


এরপর গৃহবধূর বাবা মেয়ের সঙ্গে দেখা করতে আসলে এ অবস্থা দেখতে পান। এরপর মালতি ও তার বাবা প্রথমে স্থানীয় থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে ফল হয় উল্টো। পুলিশ কোনো সাহায্য করেনি বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি। পরে জয়পুর নারী থানায় শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। ঘটনার তদন্ত চলছে।

সূত্রঃ বাংলামেইল২৪

Post a Comment