ইংল্যান্ডের হোঁচট, রাশিয়াকে উড়িয়ে শীর্ষে বেলের ওয়েলস


স্লোভাকিয়ার বিপক্ষে মূল খেলোয়াড়দের বসিয়ে রাখার মাশুল দিয়েছে রয় হজসনের ইংল্যান্ড। তাদের হোঁচট খাওয়ার দিনে দারুণ এক জয়ে ‘বি’ গ্রুপের সেরা দল হিসেবে ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের শেষ ষোলোয় পৌঁছেছে ওয়েলস।

সোমবার রাতে গ্রুপে নিজেদের শেষ ম্যাচে রাশিয়াকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দেয় প্রথমবারের মতো ইউরোয় খেলতে আসা ওয়েলস। একই সময়ে ইংল্যান্ড ও স্লোভাকিয়ার মধ্যকার ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়।

তুলুজে অ্যারন রামজি ও নেইল টেইলরের গোলে ২০ মিনিটের মধ্যে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় ওয়েলস। দলের জয় রাঙিয়ে রাখায় অবদান রাখেন বর্তমানের অন্যতম সেরা তারকা গ্যারেথ বেলও। ৬৭তম মিনিটে দারুণ এক গোলে সমর্থকদের উল্লাসে মাতান তিনি।

প্রথম দুই ম্যাচে চার পয়েন্ট পাওয়া ইংল্যান্ড অধিনায়ক ওয়েইন রুনিসহ নিয়মিত একাদশের ছয় জনকে ছাড়াই স্লোভাকিয়ার বিপক্ষে খেলতে নামে। তারপরও বেশ কয়েকটি সুযোগ এসেছিল হজসনের শিষ্যদের সামনে, কিন্তু সেগুলো তারা কাজে লাগাতে পারেনি।

সুযোগ নষ্ট করা শুরু হয় পঞ্চম মিনিট থেকে। সেবার ডিফেন্ডার নাথানিয়েল ক্লাইনের ক্রসে ডি বক্সের মধ্যে ঠিকমতো শট নিতে পারেননি জেমি ভার্ডি, বল চলে যায় ক্রসবারের উপর দিয়ে।

সপ্তদশ মিনিটে গোল করার মতো অবস্থায় বল পেয়েও গোলরক্ষক বরাবর শট মেরে আবার সুযোগ নষ্ট করেন ইপিএলের গত আসরের সর্বোচ্চ গোলদাতা ভার্ডি।

দ্বিতীয়ার্ধের অষ্টম মিনিটে নিজেদের ভুলে গোল খেতে বসেছিল ইংল্যান্ড। ডিফেন্ডার ক্রিস স্মলিং ছয় গজ বক্সে প্রতিপক্ষের একটি কর্নার বুক দিয়ে নামালেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি; কিন্তু স্লোভাকিয়ার মিডফিল্ডার রবার্ট ম্যাক গোলমুখে বলে পা লাগাতে না পারায় বেঁচে যায় ইংলিশরা।

পরের মিনিটেই পাল্টা আক্রমণে ক্লাইনের দুরূহ কোণ থেকে নেওয়া শট ঠেকিয়ে দেন স্লোভাকিয়ার গোলরক্ষক।

শিষ্যরা গোল না পাওয়ায় একই সময়ে শুরু হওয়া গ্রুপের অন্য ম্যাচও মাথায় রাখতে হচ্ছিল হজসনকে। তুলুজে সে সময়ে রাশিয়ার বিপক্ষে জয়ের পথে ছিল ওয়েলস। বেলরা জিতলে গ্রুপ সেরা হতে ইংল্যান্ডের জয়ের বিকল্প ছিল না। তাই ৫৬তম মিনিটে জ্যাক উইলশেয়ারের জায়গায় আক্রমণের সেরা অস্ত্র রুনিকে মাঠে নামান ইংল্যান্ডের কোচ।

হেরে গেলে ইংল্যান্ডের জন্য পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারত। কিন্তু প্রতিপক্ষের আক্রমণের ঝাপটা সামলে সেভাবে গোলের সুযোগই তৈরি করতে পারেনি স্লোভাকিয়া।

৭৩তম মিনিটে ম্যাচের সহজতম সুযোগ নষ্ট করেন ড্যানিয়েল স্টারিজ। গোল পেতে ছয় গজ বক্সে মাত্র একটা টোকা দরকার ছিল, তাও দিতে পারেননি তিনি।

এই ড্রয়ে তিন ম্যাচে ৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে থেকে গ্রুপ পর্ব শেষ করল ইংল্যান্ড। শীর্ষস্থান নিশ্চিত করা ওয়েলসের পয়েন্ট ৬।

৪ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে থেকে নকআউট পর্বে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখলো স্লোভাকিয়া। ছিটকে পড়া রাশিয়ার পয়েন্ট ১।

ইউরোর ছয়টি গ্রুপের সেরা দুইটি করে দল এবং তৃতীয় স্থানের সেরা চারটি দল পরের রাউন্ডে উঠবে।

সূত্রঃ বিডিনিউজ২৪

Post a Comment