বিশ্বের নজর এখন বাংলাদেশের দিকে



রাজধানীর গুলশানের জিম্মি অবস্থা ও পুলিশের হতাহতের বিষয় এখন সারাবিশ্বের আগ্রহের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন, ব্রিটিশ বিবিসি, ভারতের এনডিটিভি, পাকিস্তানের ডন, মধ্যপ্রাচ্যের আল-জাজিরাসহ বিশ্বের সবকটি প্রভাবশালী আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের শীর্ষ খবর বর্তমানে এটি।

সিএনএন, বিবিসি, এনডিটিভি, ডন সবাই কূটনৈতিক জোনে পুলিশ কর্মকর্তা নিহতের বিষয়টি ফলাও করে প্রচার করেছে। বাংলাদেশ আসলে এই মুহূর্তে কতটুকু নিরাপদ তা নিয়েও প্রশ্ন তুলছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো। পরিস্থির উত্তোরণে বাংলাদেশের প্রশাসন কতটুকু সফল হতে পারবে তা নিয়েও তাদের রয়েছে উদ্বিগ্নতা।

বিবিসির দাবি এখন পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি কে এই হামলার সঙ্গে জড়িত তবে ঢাকার পুলিশ কর্মকর্তাদের দাবি ‘ইসলামি জঙ্গি গোষ্ঠী’রা এ হামলার সঙ্গে জড়িত।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়াও কূটনৈতিক জোনে এমন হামলার খবর ফলাও করে প্রচার করছে।

"
উল্লেখ্য, শুক্রবার রাতে ‍রাজধানীর গুলশান-২ এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে আহত হয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাউদ্দিন নিহত হয়েছেন। গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

গোলাগুলিতে এডিসি আহাদ, গুলশান থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম, উপপরিদর্শক (এসআই) রফিক ও এসআই জিয়া, ভাটারা থানার পরিদর্শক ইয়াছিনসহ বেশকিছু পুলিশকে আহত অবস্থায় ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনার পর থেকে পুরো রেস্টুরেন্ট এলাকা ঘিরে রেখেছে পুলিশ। পাশের একটি ক্লিনিকের ভেতর কথিত সন্ত্রাসীরা অবস্থান নিয়েছে দাবি করে সেই ক্লিনিকটিও ঘিরে রেখেছে পুলিশ।

ঘটনাস্থলসহ পুরো গুলশান-২ এলাকার রাস্তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তবে এই সন্ত্রাসীরা কারা এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।

বাংলাদেশে এমন বিরল জিম্মি দশা ও সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাটিই গোটা বিশ্বের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে চলে এসেছে।

সূত্রঃ জাগোনিউজ২৪

Post a Comment