**TRY FREE HUMAN READABLE ARTICLE SPINNER/ARTICLE REWRITER**

কুয়াকাটায় সমুদ্রে নিখোঁজ প্লাবনের লাশ উদ্ধার

প্লাবনের শেষ সেলফি
মাগুরা প্রতিনিধি
কুয়াকাটা সমুদ্রে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ প্লাবন আহমেদের (১৯) লাশ শনিবার সকালে ভাসমান অবস্থায় পাওয়া গেছে।

মাগুরার বেলনগর গ্রামের মোশারফ হোসেনের ছেলে প্লাবন শুক্রবার দুপুরে সাগরে গোসল করতে গিয়ে  নিখোঁজ হন। শুক্রবার দুপুরে সাগরে গোসল করতে গিয়ে  নিখোঁজ হন।

প্লাবনের চাচাতো ভাই সালেহুজ্জামান টুটুল জানান, শনিবার সকালে কুয়াকাটা টুরিস্ট পুলিশ প্লাবনের মরদেহ সাগর থেকে উদ্ধার করে। তার পরিবারের সদস্যরা ইতিমধ্যে কুয়াকাটায় পৌঁছেছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে তার লাশ মাগুরায় নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

টুটুল জানান, প্লাবন তার বন্ধু নেওয়াজকে নিয়ে বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে কুয়াকাটায় বেড়াতে যান। শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে দুই বন্ধু সমুদ্রে গোসল করতে নামেন। আধা ঘণ্টা পর সাগরের উত্তাল ঢেউয়ে সাতার না জানা প্লাবনের হাত থেকে ভাসমান টিউব ছুটে গেলে সে নিখোঁজ হয়। তার সঙ্গে থাকা বন্ধু নেওয়াজের চিৎকারে সে সময় অন্য পর্যটকসহ স্থানীয় জেলেরা অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পায়নি। পরে দমকল বাহিনী ও ডুবুরীরাও সমুদ্রে খোঁজাখুজি করে ব্যর্থ হয়। এরপর শনিবার সকালে সৈকতে তার লাশ ভেসে উঠলে টুরিস্ট পুলিশ তা উদ্ধার করে।

টুটুল জানান, প্লাবন এ বছর মাগুরা হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন। সমুদ্রে নামার আগে শুক্রবার নিজের মুঠোফোনে কয়েকটি সেলফি তোলেন প্লাবন। ওই সেলফিগুলোই ছিল প্লাবনের শেষ সেলফি।

সূত্রঃ সমকাল

Post a Comment