**TRY FREE HUMAN READABLE ARTICLE SPINNER/ARTICLE REWRITER**

সেলিব্রেটিদের বিকৃত, আহত ছবি নিয়ে প্রতিবাদের ঝড়


মুখে অজস্র ক্ষতচিহ্ন। কারও বা নষ্ট হয়ে যাওয়া চোখে ব্যান্ডেজ। ছবিতে যাদের দেখা যাচ্ছে তাদের দিকে একঝলক তাকিয়ে স্তম্ভিত মানুষ। এ যে অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খান, আলিয়া ভাট, বিরাট কোহলি, নরেন্দ্র মোদির ছবি। কেন এই বিকৃত ছবি ঘুরছে ইন্টারনেট দুনিয়ায়? নেপথ্যে আছে প্রতিবাদ ও পাল্টা প্রতিবাদের কাহিনী।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ক্যাম্পেন শুরু করেছে মোহাম্ম জিবরান নাসের। উত্তপ্ত কাশ্মীর উপত্যকায় সেনার পেলেট গানে আহত হয়েছেন বহু সাধারণ মানুষ। এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই দুঃখিত বলে জানিয়েছেন সিআরপিএফ ডিজি। বিক্ষোভকারীদের ঠেকাতে সাধারণ মানুষের আহত হওয়ার ঘটনায় পেলেট গান ব্যবহারের পরিবর্তনের কথা ভাবছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। এমন পরিস্থিতিতে ‘নেভার ফরগেট পাকিস্তান’ নামে একটি ক্যাম্পেন শুরু করা হয়েছে। যেখানে ভারতীয় সেলিব্রেটিদের আহত অবস্থার ছবি ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেটে। ক্যাম্পেনের মূল বক্তব্য, যদি তারা আহত হতেন তবে কেমন হত! তার সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হযেছে একটি চিঠিও, যেখানে সাধারণ একজন আহতের বক্তব্য লেখা রয়েছে। এতে দাবি করা হয়েছে, মানবিকতার খাতিরে ভারতীয় সেনার কাজকর্মের বিরুদ্ধেই এই ক্যাম্পেন। মাত্রাতিরিক্ত দেশাত্মবোধের খাতিরে  এ ক্যাম্পেন নয় বলেও বলা হয়েছে।

কিন্তু এ নিয়ে রীতিমতো শোরগোল পড়েছে ইন্টার দুনিয়ায়। পাকিস্তানি মিডিয়া যথারীতি এ ক্যাম্পেনকে খবরের শিরোনামে এনেছে। পাল্টা প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে ভারতীয়দের মধ্যেও। হিজবুল জঙ্গী বুরহান ওয়ানির মৃত্যুতে যেভাবে বিছিন্নতাবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে উপত্যকায়, তা প্রতিরোধ করতে সেনাবাহিনীর কঠোর হওয়া ছাড়া আর কিছু করার ছিল না। যেখানে খোদ সিআরপিএফ ডিজি দুঃখপ্রকাশ করেছেন, সংসদে পেলেট গানের বিকল্প ব্যবহারের ভাবনা চলছে, সেখানে এই ধরনের ক্যাম্পেন করে আসলে বিছিন্নতাবাদকেই প্রশ্রয় দেওয়া বলে মনে করছেন সচেতন ভারতীয়রা।

বিডি-প্রতিদিন

Post a Comment