পোশাকের সঙ্গে ম্যাচিং পণ্য কিনতে ক্রেতাদের ভিড়



ঈদ সামনে রেখে রাজধানীর মার্কেটগুলোতে চলছে কেনাকাটার ধুম। অভিজাত শপিংমলে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়। অন্যদিকে হকারদের হাঁকডাকে প্রতিটি ফুটপাতের দোকানও জমে উঠেছে শেষ মুহূর্তের ঈদ কেনাকাটায়। 

পোশাক, গৃহস্থালি সামগ্রীর পাশাপাশি শেষ সময়ে এসে নিজেকে সাজাতে কসমেটিকসের দোকানে তরুণীদের ভিড় লক্ষ্য করার মতো। আর তাই বিভিন্ন বয়সী নারীরা দোকানে দোকানে ঘুরে কিনছেন নিজেদের পছন্দমতো কসমেটিকস পণ্য। তাদের পদচারণায় কসমেটিকসের দোকানগুলোও রমরমা।

এছাড়াও নিজের পোশাকের সঙ্গে ম্যাচ করে ব্যাগ-ঘড়ি-জুতা কিনতেও বিভিন্ন শপিংমল, দোকানে ভিড় জমাচ্ছেন ক্রেতারা।

Shoping

রাজধানীর নিউমার্কেট, চাঁদনিচক, গাউসিয়া, ধানমন্ডি হকার্স মার্কেট, এলিফ্যান্ট রোড, বসুন্ধরা সিটি, ইস্টার্ন প্লাজা, রাপা প্লাজা ঘুরে দেখা গেছে নতুন কাপড়ের পর এবার আনুষঙ্গিক জিনিসপত্র কিনতে রাজধানীর ফুটপাত থেকে অভিজাত মার্কেটে হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন ক্রেতারা।

গাউসিয়া মার্কেটের দোকানি তৌহিদুর রহমান জানান, তার দোকানে মূলত লেডিস ব্যাগ ও ইমিটেশন জুয়েলারি পাওয়া যায়। এই দুই ধরনের পণ্যের এখন সবচেয়ে বেশি চাহিদা। এছাড়া অন্য দোকানগুলো থেকেও ক্রেতারা ম্যাচিং করে  লেডিস ব্যাগ, পার্টি পার্স, কানের দুল, নেকলেস চুড়ি-বালা, হেয়ার ব্যান্ড, আংটি কিনতে ভিড় জমাচ্ছেন ক্রেতারা। 

লেডিস কর্ণারে মেকআপ বক্স, বডি স্প্রে, পারফিউম,  নেইলপলিস, লিপস্টিক, রিমুভার, আইলাইনার, আইশ্যাডো, লোশন বিক্রি হচ্ছে বলে জানান তৌহিদুর রহমান।

Shoping

এলিফ্যান্ট রোডের বিভিন্ন দোকান ঘুরে নানা পণয কিনছিলেন গৃহিণী বুসরা আক্তার। মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে কেনাকাটা করতে আসা এই গৃহিণী বলেন, পোশাক কেনা হয়েছে আরো আগেই, কিন্তু এখন মেয়ের জন্য ড্রেসের সঙ্গে ম্যাচ করে ঘড়ি-জুতা- ব্যাগ কিনতে এসেছি।

এছাড়া কিছু কসমেটিকস কিনবো জানিয়ে তিনি অভিযোগ করেন, ক্রেতাদের ভিড় দেখে দোকানিরা এত বেশি দাম হাঁকছে যে পছন্দের পণ্যটি কেনাই যাচ্ছে না।

গভীর রাত পর্যন্ত রাজধানীর এসব মার্কেটে জমজমাট বেচাকেনা চলছে। ইফতারের পর থেকে এ ভিড় বাড়তে থাকে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, ক্রেতা সমাগম ভালো। বিক্রিও প্রতিদিন বাড়ছে। চাঁদরাত পর্যন্ত ক্রেতাদের এ ভিড় থাকবে।


সূত্রঃ জাগোনিউজ২৪

Post a Comment