**TRY FREE HUMAN READABLE ARTICLE SPINNER/ARTICLE REWRITER**

বৃহত্তম কবিরা গুনাহ কী?


শিরক ব্যতীত প্রত্যেক পাপের ক্ষেত্রেই আল্লাহ তাআলার ক্ষমা প্রাপ্তির একটি সম্ভাবনা আছে। তাওবাই শিরকের একমাত্র প্রতিকার। এমন বড় শিরক রয়েছে যা দীন ইসলাম থেকে খারিজ হয়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ।

আল্লাহর সঙ্গে শিরক করা যে কোনো বিচারে সবচেয়ে বড় হারাম ও মহাপাপ। আবু বাকরা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন,
«أَلاَ أُنَبِّئُكُمْ بِأَكْبَرِ الكَبَائِرِ؟» ثَلاَثًا، قَالُوا: بَلَى يَا رَسُولَ اللَّهِ، قَالَ: «الإِشْرَاكُ بِاللَّهِ...»

“আমি কি তোমাদেরকে বৃহত্তম কবীরা গুনাহ সম্পর্কে অবহিত করব না (তিনবার)? সাহাবীগণ বললেন, অবশ্যই বলবেন, হে আল্লাহর রাসূল! তিনি বললেন, আল্লাহর সাথে শিরক করা .....”। [সহিহ বুখারি, হাদিস নং ৫৯৭৬; সহিহ মুসলিম, হাদিস নং ৮৭]

শিরক ব্যতীত প্রত্যেক পাপের ক্ষেত্রেই আল্লাহ তাআলার ক্ষমা প্রাপ্তির একটি সম্ভাবনা আছে। তাওবাই শিরকের একমাত্র প্রতিকার। আল্লাহ বলেছেন,
إِنَّ ٱللَّهَ لَا يَغۡفِرُ أَن يُشۡرَكَ بِهِۦ وَيَغۡفِرُ مَا دُونَ ذَٰلِكَ لِمَن يَشَآءُ

“নিশ্চয় আল্লাহ তার সঙ্গে কৃত শির্ককে ক্ষমা করবেন না। তাছাড়া যত গুনাহ আছে তা তিনি যাকে ইচ্ছা ক্ষমা করবেন। [সূরা আন-নিসা, আয়াত: ৪৮]

এমন বড় শিরক রয়েছে যা দীন ইসলাম থেকে খারিজ হয়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ। এরূপ শিরককারী ব্যক্তি যদি ঐ অবস্থায় মারা যায় তাহলে সে চিরস্থায়ী জাহান্নামী হবে। দুঃখজনক হলেও সত্য, অনেক মুসলিম দেশেই আজ শিরকের প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়ছে।


মূল : শাইখ মুহাম্মাদ সালেহ আল-মুনাজ্জিদ
অনুবাদক : মু. সাইফুল ইসলাম
সম্পাদক : ড. আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া
গ্রন্থনায় : ওয়ালি উল্লাহ সিরাজ
সৌজন্যে : ইসলামহাউজ

সূত্রঃ প্রিয়

Post a Comment