এমিরেটসের সেই বিমানের যাত্রী পেলেন ১০ লাখ ডলার



৬২ বছর বয়সী ভারতীয় নাগরিক মোহাম্মদ বশির সদ্য নতুন জীবন পেয়েছেন। বশিরের ভাষায় অলৌকিক জীবন! কিন্তু কেন? তাহলে শুনুন; গত সপ্তাহে ভারত থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইগামী এমিরেটস এয়ারলাইন্সের বিমানে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের শিকার বিমানের আরোহী ছিলেন তিনি। বিমানবন্দরে নিরাপত্তাকর্মী ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের তৎপরতায় প্রাণে বাঁচেন বিমানের ২৮৮ আরোহী। বশির তাদেরই একজন।

ঘটনার শুরু কিংবা শেষ এখানেই নয়। ৩৬ বছর ধরে আরব আমিরাতে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের চাকরি করেছেন তিনি। গত ডিসেম্বরে চাকরি থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নেন তিনি। কিন্তু এমিরেটস কর্তৃপক্ষ বশিরের চাকরির মেয়াদ বাড়িয়ে দেয় আরো এক বছর। আর এই এক বছরই আশীর্বাদ হয়ে এসেছে বশিরের জীবনে। 

বিমান দুর্ঘটনার এক সপ্তাহ পরে কপাল খুলেছে বশিরের। এবারের এই সুপ্রসন্ন ভাগ্যদেবী তার কাছে ধরা দিয়েছে ১০ লাখ মার্কিন ডলার নিয়ে। গত ৬ জুলাই ঈদের ছুটিতে দেশে ফেরার পথে দুবাই ডিউটি ফ্রি মিলেনিয়াম মিলিওনেয়ারের একটি টিকিট কিনেন তিনি। সেই টিকিট জিতেছেন বশির। পেয়ে গেছেন ১০ লাখ মার্কিন ডলার। 

বশির বলেন, দুবাই বিমানবন্দর দিয়ে দেশে ফেরার পথে মিলিওনেয়ারের একটি টিকিট কিনেছিলাম। এটি ছিল আমার ১৭তম টিকিট। অবশ্যই এখানেই আমার আশা ছিল। তারচেয়েও বেশি। 

বিমান দুর্ঘটনার কথা স্মরণ করে বশির বলেন, বিমানের পাইলটের আত্মবিশ্বাস ছিল। এ ছাড়া সৃষ্টিকর্তার করুণা যাত্রীদের প্রাণ বাঁচিয়েছে। ব্যক্তিগতভাবে আমি মৃত্যুর ভয়ে ভীত নই। আমি জানি মৃত্যু সব সময় আমাদের পিছে ঘুরছে। সবকিছুই সৃষ্টিকর্তার হাতে।

সূত্র : খালিজ টাইমস।

Post a Comment