হঠাৎ করে মোবাইলের চার্জ শেষ হলে কি করবেন



বাড়ি থেকে মেবাইলে ফুলচার্জ দিয়ে বেরোলেন, অথচ এক ঘণ্টা পরেই চার্জ শেষের দিকে। অনেকেরই এই সমস্যা হয়। কিন্তু হাতের কাছেই রয়েছে সলিউশন, খরচও বিশাল কিছু নয়।


মোবাইলের চার্জ যখন-তখন ফুরিয়ে গেলে সঙ্গে রাখতেই পারেন একটি পাওয়ার ব্যাংক। তবে আজকাল একটু ভালো রেঞ্জের মোবাইলের ব্যাটারি মোটামুটিভাবে ৪০০০ এমএএইচের আশপাশে থাকে। সেখানে পাওয়ার ব্যাংকের ক্যাপাসিটি যদি ৫০০০ হয় তবে একবার ফুলচার্জ দিয়ে নিলেই শেষ। তখন পাওয়ার ব্যাংকটিকেই আবার চার্জে বসাতে হবে। এখন প্রশ্ন উঠতেই পারে যে, একটি ভালো মোবাইলের নিজস্ব ব্যাটারি ব্যাকআপ যথেষ্ট ভালোই থাকে। সেখানে দিনে একবার ফুলচার্জ দিয়ে নিলেই তো সমস্যা মিটে যায়। তাহলে পাওয়ার-ব্যাংকের প্রয়োজন কী?



প্রয়োজন অনেক ক্ষেত্রেই পড়তে পারে। আসলে মোবাইলে কতটা পাওয়ার খরচ হচ্ছে তা একেবারেই নির্ভর করে মোবাইলটি কীভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে তার ওপর। যদি প্রচুর অ্যাপ একসঙ্গে ব্যবহার করা হয়, গেম খেলা হয় অথবা বহুক্ষণ ধরে ইন্টারনেট ব্যবহার করা হয়, তবে পাওয়ার দ্রুত ক্ষয় হতে থাকে। এছাড়া টানা অনেকক্ষণ ধরে কথা বললেও ব্যাটারির চার্জ দ্রুত কমতে থাকে। পেশাবিশেষে এবং কাজের ধরনবিশেষে মোবাইলের ব্যবহারের তারতম্য হয়। আর ব্যাটারির ক্ষয়ও একেক জনের ক্ষেত্রে একেক রকম হয়। কিন্তু সেটা যেমনই হোক না কেন, একটি পাওয়ার ব্যাংক হাতের কাছে রাখাটা খুবই দরকারি। 



বাজারে পাওয়ার ব্যাংকের কমতি নেই। নামিদামি বহু ব্র্যান্ডের পাওয়ার ব্যাংক পাওয়া যায়, কিন্তু পারফরম্যান্স সবগুলির সমান নয়। 



কোন পাওয়ার ব্যাংক প্রয়োজন তা একেবারেই নির্ভর করছে ইউজারের জীবনযাত্রা, কী ধরনের ফোন রয়েছে তার এবং ফোনের ব্যবহার কেমন তার ওপরে। তবে আর যাই হোক না কেনো, একটু ভালো ব্র্যান্ডের পাওয়ার ব্যাংক কেনাই ভালো এবং সবসময় ফোনের ক্যাপাসিটির থেকে দ্বিগুণ ক্যাপাসিটির পাওয়ার ব্যাংক কেনাই বুদ্ধিমানের কাজ।


-techtechnique

Post a Comment