সোনাগাজীতে দেশের সর্ববৃহৎ সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প



বঙ্গোপসাগরের কাছেই ফেনীর সোনাগাজীতে এক হাজার একর এলাকাজুড়ে নির্মিত হচ্ছে দেশের সর্ববৃহৎ সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প। প্রকল্পটির বাস্তবায়ন হলে এখান থেকে ২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব হবে। বিদ্যুৎকেন্দ্রটি নির্মাণে প্রাথমিকভাবে জমি অধিগ্রহণ করতে যাচ্ছে সরকার। এজন্য ১০২ কোটি ৯২ লাখ টাকার প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হচ্ছে।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে এ সংক্রান্ত একটি প্রকল্প অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্র জানায়, সোনাগাজীর বিস্তীর্ণ চরাঞ্চল এলাকায় প্রস্তাবিত এ প্রকল্প বিদ্যুৎ বিভাগের অধীনস্থ প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড বাস্তবায়ন করবে। ফেনীর মহুরী নদীর তীরে ও সোনাগাজীতেই ২০০৫ সালে দেশের প্রথম বায়ুবিদ্যুৎ কেন্দ্র পাইলট প্রকল্প হিসেবে চালু হয়। এলাকার লামছি মৌজায় ছয় একর জমির উপর স্থাপিত কেন্দ্রটির উৎপাদন ক্ষমতা এক মেগাওয়াট।

বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সোনাগাজী এলাকায় সাগরের দিক থেকে বাতাস প্রবাহিত হয় আর সূর্যের রশ্মির তীব্রতা বাংলাদেশের অন্যান্য অঞ্চল থেকে কিছুটা বেশি। তাই বাৎসরিক সৌরশক্তির পরিমাণও দেশের গড় সৌরশক্তির চেয়ে তুলনামূলক বেশি।

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, প্রাথমিক পর্যায়ে সোনাগাজীতে এ সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প থেকে ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ এবং বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্প থেকে ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎসহ মোট ২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হবে। যা যা জাতীয় গ্রিডে যোগ হবে।

বিদ্যুৎ প্রকল্পটি বাংলাদেশের প্রথম হাইব্রিড প্রকল্প। প্রকল্প এলাকায় প্রথম পর্যায়ে এক হাজার একর ভূমি অধিগ্রহণ কার্যক্রম নেয়া হলেও পর্যায়ক্রমে এর পরিসর ও বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতাও বাড়ানো হতে পারে। এ বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্পটি সম্পূর্ণই পরিবেশবান্ধব।

সংশ্লিষ্টরা জানান, দেশে দিনদিন শিল্প-কারখানা গড়ে ওঠায় প্রতিনিয়ত বিদ্যুৎ সমস্যাটি দেশের প্রধান সমস্যা হিসেবে দাঁড়িয়েছে। এ বিশাল বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্পটির সফল বাস্তবায়ন হলে আমদানি করা জ্বালানির ওপর ক্রমান্বয়ে বাংলাদেশের নির্ভরশীলতা কমে আসবে ও বিদ্যুৎ উৎপাদন সমস্যার অনেকটা সমাধান হবে বলে আশাবাদী সংশ্লিষ্টরা।


-jagonews24

Post a Comment