মহাতারকা বিড়াল


এবার এক মহাতারকা বিড়ালকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মেতেছে লাখো মার্কিনী। শুধু তাই নয় বাজেল নামের এই বিড়ালটির সঙ্গে ছবি তোলার হিড়িক পড়েছে। কেউ এটিকে ছুঁয়ে দেখতে চাইছে, আবার কেউ একটু কোলে নিয়ে আদর করতে চাইছে। এই বিড়ালটি অন্য বিড়ালের চেয়ে ঢের আলাদা। কারণ এটি নিত্য নতুন সানগ্লাস পড়ে বাইরে বের হয়।

বিড়ালটির মালিক কারেন ম্যাগজিল। বিড়াল ভক্ত এই নারী ক্যালিফোর্নিয়ার লসএ্যাঞ্জেলেসে থাকেন। বাজেলের জন্মের সময় থেকেই এটির চোখের পাপড়ি নেই। তাই পর পর তিনবার এটির চোখে অস্ত্রোপচার করানো হয়। কিন্তু কাজ হয়নি। বরং সমস্যা আরও বাড়তে থাকে। ফের চিকিৎসকের শরণাপন্ন হলে এটির চোখে ড্রপ দেয়ার পরামর্শ দেন। নিয়মিত ড্রপ দিয়েও ভাল ফল আসেনি। রোদে গেলে বিড়ালটি অস্বস্তি বোধ করতে থাকে। তাকাতেও সমস্যা হতো।

কারেন ম্যাগজিল বলেন, এরপর আমার মাথায় বুদ্ধি আসে বিড়ালটিকে সানগ্লাস পরিয়ে দিলে কেমন হয়। যে কথা সেই কাজ। পরীক্ষামূলক সানগ্লাস পরানোর পর ভাল ফল আসে। আমার সঙ্গে বাইরে বের হলে দেখি প্রচ- রোদেও দিব্যি হাঁটছে বাজেল। পরে আমি এটির জন্য নিত্য-নতুন সানগ্লাস যোগাড়ে নামি। এখন বাজেলের একাধিক সানগ্লাস রয়েছে। কয়েটির ওপর মুক্তা দিয়ে কাজ করা হয়েছে। এই মুক্তা থাকার জন্য বাজেলের চোখে ময়লা প্রবেশ করতে পারে না। 

-ডেইলি মিরর অনলাইন/জনকন্ঠ

Post a Comment